বুধবার   ২৩ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৭ ১৪২৬   ২৩ সফর ১৪৪১

শরীয়তপুর বার্তা
৭২

আবারও শুরু হচ্ছে পদ্মা সেতুতে স্প্যান বসানোর কাজ

প্রকাশিত: ১ অক্টোবর ২০১৯  

তিন মাস বন্ধ থাকার পর চলতি মাসে আবারও শুরু হচ্ছে পদ্মা সেতুতে স্প্যান বসানোর কাজ। বর্ষার তীব্র স্রোতে নদীতে পলি জমে থাকায় এ সময়টায় কাজ বন্ধ রাখতে হলেও এ মাসেই সর্বোচ্চ ৪টি স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা সেতু কর্তৃপক্ষের। চলতি বছরের মধ্যে ৪২টি পিলার দৃশ্যমান করার পর আগামী জুন মাসের মধ্যে সব স্প্যান বসানোর পরিকল্পনার কথা জানালেন প্রকল্প পরিচালক।
 

কমছে পদ্মার পানি। নদী তাই এখন আগের তুলনায় কিছুটা শান্ত। তবে বর্ষার সময়টায় নদীর তলদেশে জমেছে ভারি পলির স্তর। এমনকি মাওয়ার মূল নদীর সঙ্গে জাজিরামুখী পয়েন্টে চ্যানেলের মুখে কৃত্রিম বাঁধ দিয়েও ঠেকানো যায়নি পলির অনুপ্রবেশ।

পলির বাধার কারণে এ সময়টায় স্প্যানবাহী ভারি ক্রেন চলাচল করতে না পারায় বন্ধ ছিল কাজ। এখন দিনরাত তিনটি ড্রেজার মেশিনে চলছে পলি কাটার কাজ। নদীর তলদেশ ক্রেন চলাচলের জন্য উপযুক্ত হলেই শুরু হবে স্প্যান উঠানো। এর মধ্যে প্রতি সপ্তাহে একটি করে এ মাসে ৪টি স্প্যান বসানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে সেতু কর্তৃপক্ষ। প্রথমটি বসানো হবে ২৩ ও ২৪ নম্বর পিলারে।

পদ্মা বহুমুখী সেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম বলেন, ড্রেজিং করার পর এখন বড় ক্রেনটা চলাচলের মতো উপযুক্ত হয়েছে। সুতরাং এ মাসেই আবার স্প্যান বসানোর কার্যক্রম শুরু হবে।

সেতুর ৪১টি স্প্যানের মধ্যে এখন পর্যন্ত চীন থেকে দেশে এসেছে ৩০টি। এর মধ্যে নদীতে নিয়ে রাখা ২টি আর ইয়ার্ডের ৪টিসহ শতভাগ প্রস্তুত ৬টি স্প্যান। নতুন স্প্যান বসানো না গেলেও ২০ ও ২১ নম্বর পিলারে অস্থায়ীভাবে বসানো একটি স্প্যানকে গত ২৬ সেপ্টেম্বর ২৪ ও ২৫ নম্বর পিলারের ওপর স্থায়ীভাবে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

শফিকুল ইসলাম বলেন, আগামী জানুয়ারি থেকে ফেব্রুয়ারির মধ্যে ১১টা স্প্যান চলে আসবে। আগামী বর্ষার আগে আমরা সবগুলো স্প্যান বসাতে চাই।
এখন পর্যন্ত মূল সেতুর কাজ হয়েছে ৮৩ ভাগ। আর পুরো প্রকল্পের কাজ শেষ হয়েছে ৭৩ ভাগ।

এই বিভাগের আরো খবর