• মঙ্গলবার   ০৭ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৩ ১৪২৭

  • || ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪১

শরীয়তপুর বার্তা
৩০৯

এসএসসি-সমমানের ফল প্রকাশ

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৩১ মে ২০২০  

এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। আজ রোববার (৩১ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফলের অনুলিপি তুলে দেয়া হয়। শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি সেখানে ফলাফলের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছে। রোববার (৩১ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় বিভিন্ন বোর্ডের চেয়ারম্যানরা শিক্ষামন্ত্রীর কাছে ফলাফল হস্তান্তর করেছেন। এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। রোববার গণভবনে ফল প্রকাশের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সকল বোর্ড মিলিয়ে সারাদেশে মোট জিপিএ-ফাইভ পেয়েছেন ১,৩৫,৮৯৮ জন পরীক্ষার্থী। সারা দেশে পাসের হার ৮২.৮৭।

বরিশাল বোর্ডে পাসের হার ৭৯.৭০। এ বোর্ডে উত্তীর্ণদের মধ্যে জিপিএ-ফাইভ পেয়েছেন ৪৪৮৩ জন। যশোর বোর্ডের ক্ষেত্রে পাসের হার ৮৭.৩১ এবং জিপিএ-ফাইভ পেয়েছেন ১৩৭৬৪ জন। সিলেট বোর্ডে পাসের হার ৭৮.৭৯, জিপিএ-ফাইভ পেয়েছেন ৪২৬৩ জন। দিনাজপুর বোর্ডে পাসের হার ৮২.৭৩ এবং ১২০৮৬ জন জিপিএ-ফাইভ পেয়েছেন। কুমিল্লা বোর্ডে পাসের হার ৮৫.২২ এবং জিপিএ-ফাইভ পেয়েছেন ১০,২৪৫ জন শিক্ষার্থী।

জিপিএ-ফাইভ পাওয়ার তালিকায় সবার উপরে রয়েছে ঢাকা বোর্ড। এ বোর্ডে জিপিএ-ফাইভ পেয়েছেন সর্বোচ্চ ৩৬,০৪৭ জন। ঢাকা বোর্ডে পাসের হার ৮২.৩৪।

বোর্ডগুলোর মধ্যে পাসের হারে শীর্ষে রয়েছে রাজশাহী বোর্ড। এ বোর্ডে পাসের হার ৯০.৩৭। জিপিএ-ফাইভ পেয়েছেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৬,১৬৭ জন পরীক্ষার্থী।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে এসময় তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতির স্বাভাবিকতা বুঝে ধাপে ধাপে খোলা হবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

সকাল ১১ টায় স্বয়ংক্রিয়ভাবে শিক্ষাবোর্ডের সার্ভার থেকে এসএমএসের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ফল জানিয়ে দেওয়া হবে। ১১টায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে সংবাদ সম্মেলনে ফলাফলের বিস্তারিত তুলে ধরবেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

এবার করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে শিক্ষার্থীদের স্কুলে গিয়ে ফল জানার সুযোগ নেই। তাই এসএমএসের মাধ্যমে এসএসসির ফল প্রকাশ করছে শিক্ষাবোর্ড। ফল পেতে SSC স্পেস, বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর স্পেস, রোল নম্বর স্পেস, পাসের সাল লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে ফল জানিয়ে দেওয়া হবে।

এ বছরের এসএসসি পরীক্ষা শুরু হয় ৩ ফেব্রুয়ারি, শেষ হয় ২৭ ফেব্রুয়ারি। ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ৫ মার্চের মধ্যে ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের আওতায় এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয় ১৬ লাখ ৩৫ হাজার ২৪০ শিক্ষার্থী। যার মধ্যে আট লাখ ৪৩ হাজার ৩২২ ছাত্রী। ছাত্রের তুলনায় ৫১ হাজার ৪০৪ ছাত্রী বেশি।

মাদরাসা বোর্ডের দাখিল পরীক্ষায় অংশ নেয় দুই লাখ ৮১ হাজার ২৫৪ জন। ছাত্রী অংশ নেয় এক লাখ ৪৭ হাজার ১১৬ জন। ছাত্রের তুলনায় ১২ হাজার ৯৭৮ জন বেশি। এছাড়া কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষায় এক লাখ ৩১ হাজার ২৮৫ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে।

শিক্ষা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর