• শনিবার   ১০ এপ্রিল ২০২১ ||

  • চৈত্র ২৭ ১৪২৭

  • || ২৮ শা'বান ১৪৪২

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ স্বীকৃতি পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাবর্তন জলবায়ু কূটনীতিতে নতুন গতির সঞ্চার হবে প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ সরকার গঠিত হয় একাত্তরের ১০ এপ্রিল ডি-৮ সদস্য দেশগুলোর মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়াতে হবে:প্রধানমন্ত্রী করোনার ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে ডি-৮ এর প্রতি প্রধানমন্ত্রী আহ্বান আজ বৈঠকে বসছেন ডি-৮ শীর্ষ নেতারা মানুষ বাঁচাতে আরও কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী টিকাদানে বিশ্বের শীর্ষ ২০ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী বাণিজ্য সম্প্রসারণে মার্কিন সরকারের সহায়তা চান প্রধানমন্ত্রী

দুর্গম এলাকায় স্থানীয়ভাবে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১ মার্চ ২০২১  

দুর্গম এলাকায় নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান করবে সরকার। পড়ানো হবে ডিজিটাল কনটেন্টের মাধ্যমে। স্থানীয়ভাবে নিয়োগ দেওয়া হবে শিক্ষক। সবাইকে শিক্ষার আওতায় আনতে নেওয়া হচ্ছে এই উদ্যোগ।
শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, যেসব এলাকায় যাতায়াত সহজ নয়- বিশেষ করে পাহাড়ি, চরাঞ্চল ও হাওর এলাকায় এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপন করা হবে। যেখানে বিদ্যুৎ পৌঁছায়নি সেখানে সৌরবিদ্যুৎ কিংবা জেনারেটর দিয়ে চালানো হবে ডিজিটাল ব্যবস্থায় পাঠদান কার্যক্রম। এমনকি স্মার্ট টিভিও ব্যবহার করা হবে।

জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, ‘হার্ড টু রিচ এরিয়া, হাওর ও চর এলাকার যেখানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নেই সেখানে কী করা যেতে পারে তা জানতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের চিঠি দেওয়া হয়েছে।’
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘অনেক দুর্গম জায়গায় শিক্ষক পাওয়া যায় না। তাই বলে ডিজিটাল বাংলাদেশে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ থাকবে না। সেসব এলাকায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান করে স্থানীয়দের নিয়োগ দেবো। প্রয়োজনে শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল করা হবে। তবে যারা টেলিভিশন চালাতে পারে, অনলাইন টিভি ও সৌরবিদ্যুতের যন্ত্রপাতি চালাতে পারে তাদের নিয়োগ দেওয়া হবে। ইন্টারনেটে যদি বাসায় বসে পড়তে পারে, তাহলে স্কুলের মধ্যেও স্মার্ট টিভি দিয়ে পড়াশোনা চালাতে পারবো। স্মার্ট টিভিতে পেনড্রাইভ দিয়েও এটা করা যায়।’

উল্লেখ্য, দেশে এমপিওভুক্ত মোট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ২৭ হাজার ৮১০টি। ২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর নতুন করে ২ হাজার ৭৩০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন স্তর এমপিওভুক্ত করা হয়। ওই বছরের ১২ নভেম্বর ছয়টি এবং ১৪ নভেম্বর আরও একটি প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করা হয়।

উল্লেখ্য, দেশে বর্তমানে মোট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ৬৫ হাজার ৯৯টি। এর মধ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একযোগে জাতীয়করণ করা প্রাথমিক বিদ্যালয় ৩৭ হাজার ৬৭২টি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তিন দফায় নতুন করে জাতীয়করণ করেছেন ২৬ হাজার ১৫৯টি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এ ছাড়া প্রাইমারি ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (পিটিআই) সংলগ্ন পরীক্ষণ বিদ্যালয় রয়েছে ৬১টি।