• শুক্রবার   ১৮ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ৪ ১৪২৮

  • || ০৮ জ্বিলকদ ১৪৪২

শরীয়তপুর বার্তা

দেশের ৪ কোটির বেশি মানুষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৯ জুন ২০২১  

দেশের প্রায় চার কোটির বেশি মানুষ ফেসবুক, মেসেঞ্জার, ইনস্টাগ্রাম এবং লিংকড ইন এর মতো কোন না কোন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করেন। ব্যবহারকারীদের মধ্যে নারীর চেয়ে পুরুষদের সংখ্যাই বেশি। সম্প্রতি নেপোলিয়ন ক্যাট নামক ফেসবুক এ বিজ্ঞাপনী দেওয়ার একটি এজেন্সি এক প্রতিবেদনে জানায় এমনটাই।

ফেসবুক এফিলিয়েটেড ওই বিজ্ঞাপনী সংস্থা বলছে, দেশের প্রায় চার কোটির বেশি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী কোন না কোন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করেন। এগুলোর মধ্যে অন্তত ফেসবুক, মেসেঞ্জার, ইনস্টাগ্রাম এবং লিংকড ইন।  

সর্বশেষ মে মাসের পর্যন্ত পর্যালোচনা করে নেপোলিয়ন ক্যাট বলছে, চলতি বছরের এপ্রিল মাসের তুলনায় মে মাসে এসব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যবহারকারী যুক্ত হওয়ার সংখ্যা বেশি।  

এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটির মতে, বাংলাদেশ থেকে ফেসবুকের ব্যবহারকারী রয়েছেন প্রায় চার কোটি ৮২ লাখ ৩০ হাজার জন। যা দেশের মোট জনসংখ্যার অন্তত ২৮ শতাংশ।

এদের মধ্যে থেকে প্রায় চার কোটি ২১ লাখ ৫০ হাজার জন মেসেঞ্জার ব্যবহার করেন যা দেশের মোট জনসংখ্যার ২৪ দশমিক ৫ শতাংশ।  

এছাড়াও ফেসবুক মালিকানাধীন আরেক জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে বাংলাদেশ থেকে ব্যবহারকারী রয়েছেন ৪০ লাখ সাত হাজার ১০০ জন। দেশের মোট জনসংখ্যার তুলনায় যার হার দুই দশমিক তিন শতাংশ।  

অন্যদিকে ক্যারিয়ার ও চাকরি সংক্রান্ত আরেক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম লিংকড ইন বাংলাদেশ থেকে ব্যবহার করছেন প্রায় ৪১ লাখ ১৭ হাজার জন। মোট জনসংখ্যার তুলনায় এর হার দুই দশমিক চার শতাংশ।  

দেশের তরুণ জনগোষ্ঠীর মধ্যে লিংকড ইন এর তুলনায় ফেসবুক, মেসেঞ্জার ও ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করার প্রবণতা বেশি। নেপোলিয়ন ক্যাট বলছে, এই তিনটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীদের বেশিরভাগের বয়স ১৮ থেকে ২৪ বছর বয়সের মধ্যে। আর লিংকড ইন ব্যবহারকারীদের বেশিরভাগের বয়স ২৫ থেকে ৩৪ বছর বয়সের মধ্যে। যার ব্যবহারকারীদের মধ্যে নারীদের তুলনায় পুরুষদের সংখ্যাই বেশি।  

সম্প্রতি বাংলাদেশে ফেসবুক, গুগল এবং আমাজন তাদের ব্যবসায়িক আয়ের জন্য কর নিবন্ধন করলে দেশের ব্যবহারকারীদের বিষয়টি আবার আলোচনায় আসে। কারণ এসব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের আয়ের সবথেকে বড় উৎস বিজ্ঞাপন। কাজেই লাভজনক বিনিয়োগ হিসেবে বাংলাদেশের বাজারে বিজ্ঞাপন প্রচারে এই দেশের ব্যবহারকারীদের বিস্তারিত তথ্য দরকার হয় বিজ্ঞাপনী সংস্থাগুলোর।