• শনিবার   ১৫ মে ২০২১ ||

  • চৈত্র ৩১ ১৪২৮

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪২

শরীয়তপুর বার্তা

পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে বিশাল গ্রহাণু, বিপদের আশঙ্কায় বিজ্ঞানীরা

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১১ এপ্রিল ২০২১  

মহাকাশের গভীর থেকে গোলার মতো ছুটে আসে পাথর বা ধাতুর তৈরি গ্রহাণু। সেগুলির মধ্যে কয়েকটির গতিপথ এমন যে, তা পৃথিবীর জীব-জগতের জন্য বিপজ্জনক হতে পারে। প্রায় ১০ কিলোমিটার ব্যাসের এমনই একটি গ্রহাণু বহুকাল আগে আমাদের গ্রহে তাণ্ডব সৃষ্টি করেছিল। সেটির আঘাতে ডাইনোসার প্রজাতি লুপ্ত হয়ে যায়।

সম্প্রতি নাসা জানিয়েছে, পৃথিবীর কক্ষপথের কাছাকাছি আরও একটি গ্রহাণু আসতে চলেছে। অচিরেই পৃথিবীর গা-ঘেঁষে ছুটে যাবে ফুটবল মাঠের আকারের এই গ্রহাণু! খবর জি নিউজের।

মহাশূন্যে ভেসে বেড়াচ্ছে পৃথিবী। মহাশূন্যেই ভেসে বেড়াচ্ছে আরও গ্রহ, উপগ্রহ, গ্রহাণু। ফলে, কখন কোনটা আমাদের গ্রহের কাছাকাছি এসে পড়ে তা নিয়ে বিজ্ঞানীদের উদ্বেগ খুব স্বাভাবিক। নাসা তাই নিরন্তর গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছে গ্রহাণুদের গতিবিধি নিয়ে।

সেই পর্যবেক্ষণেরই ফলস্বরূপ সম্প্রতি নাসা জানিয়েছে, পৃথিবীর কক্ষপথের কাছাকাছি আরও একটি গ্রহাণু ধেয়ে আসতে চলেছে। গ্রহাণুটির নাম এএফ৮। জানা গেছে, এর আয়তন একটা ফুটবল মাঠের সমান। এর ব্যাস ২৬০ থেকে ৫৮০ মিটারের মতো।

গ্রহাণুটি প্রতি সেকেন্ডে ৯ কিলোমিটার বেগে মহাশূন্যে ছুটছে। পৃথিবীর কক্ষপথের ৩ দশমিক ৪ মিলিয়ন কিলোমিটার ঘেঁষে এটি অবস্থান করবে। নাসার বিজ্ঞানীদের দাবি, এর থেকে বিপদের আশঙ্কা থাকতেই পারে!

গত ২৫ ডিসেম্বর নাসার বিজ্ঞানীরা প্রথম এই গ্রহাণুটির অস্তিত্ব সম্পর্কে অবহিত হয়েছিলেন। তার পর থেকে গ্রহাণুটি ঘিরে এখন পর্যন্ত মোট ১৫৭টি পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে। তার ভিত্তিতেই নিশ্চিত হওয়া গেছে, ৪ মে গ্রহাণুটি পৃথিবীর কক্ষপথে ঢুকে পড়বে। যদিও তার পর ঠিক কী হবে, তা নিয়ে কোনো কিছু নিশ্চিত করে বলতে পারেননি বিজ্ঞানীরা।