• বুধবার   ২১ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৬ ১৪২৭

  • || ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

শরীয়তপুর বার্তা
৫১

সরকারি সাত ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা শুরু নভেম্বরে

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৪ অক্টোবর ২০২০  

করোনার কারণে আটকে যাওয়া সরকারি সাত ব্যাংকের বড় নিয়োগ পরীক্ষাগুলো আগামী নভেম্বর মাসে শুরুর পরিকল্পনা করছে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি (বিএসসি)।

সে মোতাবেক চলতি মাসেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষার বড় একটি ট্রায়াল চালাতে যাচ্ছেন তারা। ওই ট্রায়াল শেষে নভেম্বর থেকে বড় পরীক্ষাগুলো শুরু হবে বলে জানা গেছে।

শনিবার গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্য সচিব আরিফ হোসেন খান এ তথ্য জানিয়েছেন। তবে পরীক্ষা আয়োজনের পরিকল্পনা করতে গিয়ে বেশ কিছু প্রতিবন্ধকতা তৈরি হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। সেগুলোও দ্রুত সমাধানের চেষ্টা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

জানা গেছে, গত ৩ সেপ্টেম্বর ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির তত্ত্বাবধানে সাতটি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে সিনিয়র অফিসার এর ৭৭১টি শূন্যপদে নিয়োগের উদ্দেশ্যে এমসিকিউ এবং লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য অনলাইনে আবেদনকৃত প্রার্থীদের প্রবেশপত্র ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ডাউনলোড করতে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এছাড়া কয়েক হাজার পদের জন্য আরো অন্তত সাতটি নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র সাম্প্রতিক সময়ে দেয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে আরিফ হোসেন খান বলেন, ‘আমরা প্রার্থীদের অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করতে বলেছি। আগামী ৩১ অক্টোবর জনতা ব্যাংকের একটি স্থগিত পরীক্ষা নেয়া হবে। এতে ৪৮ হাজার পরীক্ষার্থী রয়েছেন। সেখান থেকে পরিস্থিতি কী দাড়ায় আমরা দেখবো। এরপরই নভেম্বর থেকে আমরা পরীক্ষাগুলো আয়োজনের পরিকল্পনা করছি।’

তিনি বলেন, ‘জনতা ব্যাংকের ওই পরীক্ষা থেকে শিক্ষা নিয়ে আমরা পরিকল্পনা চূড়ান্ত করব। তবে কেন্দ্র ম্যানেজ করতে যথেষ্ট সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। অনেক ক্ষেত্রে কেন্দ্র পেলেও শিক্ষকরা পরীক্ষা গ্রহণে রাজি হচ্ছেন না। তবে আমরা একাধিক শিফটে পরীক্ষা নেওয়াসহ কয়েকটি বিকল্প উপায় নিয়ে কাজ করছি। আশা করছি, নভেম্বরেই পরীক্ষা নিতে পারব।’

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, নভেম্বরকে টার্গেট করে চলতি মাসেই পরীক্ষার টেন্ডার আহ্বান করা হবে। ইতোমধ্যে যারা প্রবেশপত্র ডাউনলোড করেছেন তার একটি হিসেবও পেয়েছেন তারা। সে মোতাবেক টেন্ডার ডাকা হবে। এ প্রক্রিয়া শুরু করতে আরো কয়েকদিন সময় নেবেন বলে তারা জানিয়েছেন। তবে করোনা পরিস্থিতির ওপর অনেক কিছু নির্ভর করছে বলেও স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন তারা।

প্রসঙ্গত, সরকারি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির জনবল নিয়োগ দিতে সুপারিশ করে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি সচিবালয় (বিএসসিএস)। বাংলাদেশ ব্যাংকের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত এই সচিবালয় চাহিদা পাওয়ার পর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।

তবে মার্চে দেশে করোনার প্রকোপ শুরু হওয়ার পর এই প্রক্রিয়া এগোয়নি। সম্প্রতি লিখিত ও এমসিকিউ পরীক্ষার প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে বলায় চাকরিপ্রত্যাশীদের মধ্যে আশার সঞ্চার হয়েছে। ইতোমধ্যে স্বল্প সংখ্যক পদের কয়েকটি পরীক্ষাও অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জব কর্ণার বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর