শনিবার   ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৯ ১৪২৬   ১৬ রবিউস সানি ১৪৪১

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
বিশ্বের প্রভাবশালী ১০০ নারীর তালিকায় শেখ হাসিনা ডামুড্যায় ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস উপলক্ষ্যে র‌্যালি ও আলোচনা সভা ঘুষ-দুর্নীতির বিরুদ্ধে সজাগ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জা‌জিরায় পাঁচটি ইট ভাটায় ছয় লাখ টাকা জরিমানা ও উচ্ছেদ ভারতের উদ্যোক্তাদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারে দায়িত্বশীল হতে হবে: স্পিকার তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণ হলে সেবা পাবে আরও ১২ মিলিয়ন যাত্রী শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানালেন ট্রাইব্যুনাল রূপপুর বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে দেশ নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ পাবে ৬০ বছর বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন: ড. কামাল-রীভা গাঙ্গুলির বৈঠক
২০

সারাদেশে ৪৯ হাজার ১৬২ জন নদী দখলদার চিহ্নিত

প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০১৯  

‘সারাদেশে প্রায় ৪৯ হাজার ১৬২ জন নদ-নদী দখলদার রয়েছেন। নদী দখলমুক্ত করার জন্য জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন কাজ করছে। এ কাজ করতে গিয়ে যেসব মামলা হচ্ছে, সেগুলো দ্রুত নিষ্পত্তি করার জন্য স্পেশাল আইনজীবী নিয়োগ দেয়া হয়েছে।’

বুধবার সংসদ ভবনে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ১৩তম বৈঠকে এই তথ্য জানিয়েছে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন। কমিটির সভাপতি মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য শাজাহান খান, রণজিৎ কুমার রায়, এম আব্দুল লতিফ, ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল এবং মো. আছলাম হোসেন সওদাগর উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, নদী দখল হয়ে যাওয়া উদ্বেগজনক। দখল হওয়া নদীগুলো উদ্ধারের জন্য হাইকোর্ট যে নির্দেশনা দিয়েছেন সে অনুযায়ী (অগ্রাধিকার ভিত্তিতে) পরিকল্পনা নিতে বৈঠকে সুপারিশ করেছে কমিটি। এর বাস্তবায়ন অগ্রগতি কমিটিকে জানানোর জন্য সুপারিশ করা হয়।

জানা যায়, জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান, কমিশন কর্তৃক এ পর্যন্ত গৃহীত কার্যক্রম ও বাস্তবায়ন অগ্রগতি সম্পর্কে বৈঠকে তথ্য উপস্থাপন করে। জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন কী লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে গঠন করা হয়েছে, কমিশন স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে কি না? আইনে কোনো পরিবর্তন/সংযোজনের প্রয়োজন আছে কি না? সে বিষয়ে একটি খসড়া এবং দখল হওয়া নদীগুলোর তথ্য ম্যাপসহ কমিটিতে উপস্থাপন করার সুপারিশ করা হয় বৈঠকে।

এই বিভাগের আরো খবর