• রোববার   ১৭ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৪ ১৪২৭

  • || ০৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
৪৮০

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে চাল আমদানি শুরু

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১০ জানুয়ারি ২০২১  

ফের দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে (নন বাসমতি) চাল আমদানি শুরু হয়েছে।এতে বাজারে চালের দামে স্বস্তি ফিরে আসবে বলে আশা করা হচ্ছে। শনিবার (৯ জানুয়ারি) ১১২ মেট্রিক টন চাল বোঝাই ৩টি ভারতীয় ট্রাক হিলি স্থলবন্দরে বন্দরে প্রবেশ করে। নওগাঁর আমদানিকারক একটি প্রতিষ্ঠান এই চাল আমদানি করে। গেল বছর ৩০ মে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে সর্বশেষ দেশে চাল আমদানি হয়েছিল।

হিলি স্থলবন্দরের কয়েকজন চাল আমদানিকারক জানান, দেশে ভরা মৌসুমেও চালের বাজারে দামের লাগাম টানা যাচ্ছিল না। প্রতিনিয়ত দামের ঊর্ধ্বগতিতে ক্রেতারা হাঁফিয়ে উঠছিলেন। এ অবস্থায় সরকার দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে কৃষি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ভারতসহ বিভিন্ন দেশ থেকে বেসরকারিভাবে (নন-বাসমতি) সিদ্ধ চাল আমদানি করার সিদ্ধান্ত নেয়। যার ফলে হিলিসহ দেশের বিভিন্ন এলাকার আমদানিকারকেরা সরকারের কাছে চাল আমদানির জন্য আবেদন করেন। গত ৩ ও ৫ জানুয়ারি দেশের ২৯ জন আমদানিকারক সরকারের খাদ্য মন্ত্রণালয় থেকে অনুমতি পেয়ে প্রতিবেশি দেশ ভারত থেকে চাল আমদানির জন্য এলসি করেন। এর মধ্যে হিলি স্থলবন্দরের দুইজন আমদানিকারকও রয়েছেন। তারাও ২০ হাজার মেট্রিক টন চাল আমদানির অনুমতি পান। এরই অংশ হিসেবে শনিবার বিকালে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে স্বর্না ৫ জাতের ১১২ মেট্রিক টন চালের একটি প্রথম চালান আমদানি করে আনেন নওগাঁর আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান মেসার্স জগদিশ চন্দ্র রায়।

এই প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি শ্রীপদ রায় বলেন, অনুমতি পেয়ে আমরা সরকারের বিভিন্ন শর্তাবলী অনুসরণ করে ভারত থেকে ১০ হাজার মেট্রিক টন চাল আমদানির জন্য এলসি করেছি। শনিবার প্রথম চালানের ৬০০ মেট্রিক টনের মধ্যে ১১২ মেট্রিক টন চাল দেশে প্রবেশ করেছে। আরও চাল আসবে। আমদানি অব্যাহত থাকলে বাজারে চালের দাম অনেক কমে আসবে। বন্দরে আসা চালগুলি এখনও খালাস করা হয়নি। সরকারি রাজস্ব পরিশোধ করে রবিবার খালাস করা হবে।

হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ জানান, ভারত থেকে প্রতি মেট্রিক টন চালের আমদানি মূল্য পড়েছে ৩৫৬ ডলার। যা বাংলাদেশি টাকায় প্রতি কেজি ২৯-৩০ টাকা হচ্ছে। সরকারি রাজস্ব আরও চার টাকা যোগ করলে প্রতি কেজিতে পড়ছে ৩৪ টাকার মতো। বেশ কয়েকজন আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানও এই বন্দর দিয়ে চাল আমদানির জন্য এলসি করেছে। তাদের চালও কয়েকদিনের মধ্যে দেশের বাজারে আসবে।

হিলি স্থলবন্দরের বেসরকারি অপারেটর পানামা হিলি পোর্ট লিংক লিমিটেডের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন মল্লিক জানান, শনিবার বিকালে আমদানি হয়ে আসা ভারতীয় চাল বোঝাই ৩টি ট্রাক বন্দরের পানামা ওয়্যারহাউজে প্রবেশ করেছে। তবে ট্রাক থেকে চালগুলি খালাস করা হয়নি। কাস্টমসের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হলে রবিবার খালাস হতে পারে। এরপর আমদানিকারকেরা বন্দর থেকে তাদের চাল নিয়ে যেতে পারবেন।

এদিকে, দীর্ঘদিন পর ভারত থেকে চাল আমদানি হওয়ায় বন্দরের শ্রমিক ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে কর্মচাঞ্চল্যতা ফিরে এসেছে।

অর্থনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর