• মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪২৮

  • || ০৫ জ্বিলকদ ১৪৪২

শরীয়তপুর বার্তা

১৩০ বছর পর বিরল প্রজাতি প্রাণীর দেখা মিলল

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৩১ জানুয়ারি ২০২১  

১৩০ বছর পর অত্যন্ত বিরল প্রজাতির প্রাণী দেখল নিউইয়র্কবাসী। শহরের সেন্ট্রাল পার্কে হঠাৎ সবার নজরে আসে তুষার প্যাঁচার। এই প্যাঁচা অন্যান্য প্যাঁচা থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। সাদা বর্ণের এই প্যাঁচার গায়ে আছে ডোরাকাটা দাগ। এটিই প্যাঁচাকে আরো আকর্ষণীয় করে তোলে সবার কাছে।

নিউইর্য়ক টাইমসের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে গত বুধবার প্রায় ১৩০ বছর পর এই প্যাঁচাকে প্রথমবার সেন্ট্রাল পার্কে দেখতে ভিড় করে নিউইয়র্ক শহরের বাসিন্দারা। এই প্যাঁচাকে দেখে তারা সঙ্গে সঙ্গেই তার ছবি এবং ভিডিও শেয়ার করে সামাজিকমাধ্যমে।

যুক্তরাষ্ট্র মিউজিয়ামের পাখি বিভাগের প্রধান পল সুইট জানিয়েছেন, সেন্ট্রাল পার্কে অত্যন্ত বিরল প্রজাতির এই তুষার প্যাঁচা সর্বশেষ দেখা গিয়েছিল ১৮৯০ সালে।

আর্কটিক টুন্ডার স্থানীয় পাখি হলো তুষার প্যাঁচা এবং শীতকালে এরা দক্ষিণে পাড়ি দেয়। বিরল প্রজাতির এই প্যাঁচা সংখ্যায় খুবই কম। এই প্যাঁচা বেশির ভাগ সময় আইল্যান্ড বা সমুদ্রসৈকতে দেখা যায়। হঠাৎ করেই তুষার প্যাঁচার আগমনে খুশি হয়েছিল ওই সেন্ট্রাল পার্কের কর্তৃপক্ষরা।

সেন্ট্রাল পার্ক কর্তৃপক্ষ একটি ট্যুইটের মাধ্যমে জানিয়েছে, প্যাঁচা খুবই শান্তিপ্রিয়। কুকুর ও অন্যান্য প্রাণী এবং ভক্তদের মধ্যে বিশেষত শহরাঞ্চলে অশান্তির ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে এই প্যাঁচাটি। দয়া করে আপনারা সাবধানতা অবলম্বন করুন, দূরত্ব বজায় রাখুন এবং তাদের উপস্থিতির গুরুত্ব দিন।

বার্ড সেন্ট্রালপার্ক ওই তুষার প্যাঁচার একটি ভিডিও পোস্ট করেছে, যেখানে তার পাশে একটি কাককে বসে থাকতে দেখা গেছে।

সেন্ট্রাল পার্কে এই তুষার প্যাঁচার ছবি ধীরে ধীরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। একজন ব্যক্তি মন্তব্য করেন, নিউইয়র্কের সেন্ট্রাল পার্কে তুষার প্যাঁচার বিরল চেহারা এমনকি এক মুহূর্তের জন্য দেখার সুযোগটি পাওয়া আমার কাছে সত্যিই দুর্দান্ত ছিল।