• শুক্রবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৯ ১৪২৮

  • || ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

শরীয়তপুর বার্তা

শরীয়তপুরে ৩ দিনব্যাপী দাবা লীগ শুরু

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১৪ অক্টোবর ২০২১  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

মুজিবশতবর্ষ উপলক্ষে শরীয়তপুরে তিন দিনব্যাপী দাবা লীগ শুরু হয়েছে। জেলা পুলিশের আয়োজনে জেলা ক্রীড়া সংস্থার পরিচালনায় পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের সহযোগিতায় বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) দুপুর ১টায় শরীয়তপুর পুলিশ লাইন্স ড্রিল সেডে ওই লীগের উদ্বোধন করেন পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও শরীয়তপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য একেএম এনামুল হক শামীম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শামীম বলেন, দাবা বুদ্ধিমত্তার খেলা। আমিও ছাত্র জীবনে দাবা খেলছি। এখন বিশ্ব চলছে বুদ্ধিতে, আইটিতে। দেখেন হাতের মুঠোয় বিশ্বের সব পাবেন। ফোর-জির বাংলাদেশ, ফাইব-জিতে আমরা প্রবেশ করছি। মহাকাশে বাংলাদেশ। পাকিস্তান থেকে আমরা এগিয়ে, শুধু তাই নয় ভারত থেকেও আমরা অনেক দিক দিয়ে এগিয়ে। আগে বিদেশি খেলোয়াড়দের নাম আমাদের শুনতে হতো, মুখস্থ করতে হতো। এখন বাংলাদেশের শাকিব আল হাসান, মাশরাফি, মাহমুদউল্লাহ, তারা বিশ্বের শেরা ক্রিকেট খেলোয়ার। পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়াকে আমরা হারিয়েছি। ভারতকে হারিয়ে আমরা বিশ্ব চ্যাম্পিয়ান হওয়ার স্বপ্ন দেখি। ছেলেদের পাশাপাশি আমাদের মেয়েরাও খেলায় এগিয়ে যাচ্ছে। একটা দেশের ছেলে-মেয়ে সবাই যখন তাল মিলিয়ে এগিয়ে যায়, তখন দেশটাও এগিয়ে যায়। 

তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা একজন ব্যতিক্রমধর্মী প্রধানমন্ত্রী। তিনি শুধু নির্বাচন নিয়ে ভাবেন না। তিনি পরবর্তী প্রজন্মকে নিয়ে ভাবেন। তিনি প্রায় বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশকে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের বাসযোগ্য করে যাব। নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গিকার। 

২১০০ সনে বাংলাদেশ কেমন হবে, তাও বঙ্গবন্ধুর কন্যা ডেল্টা প্লান বাস্তবায়ন করে রেখেছেন।

এসময় পুলিশ সুপার এস.এম. আশরাফুজ্জামানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য ইকবাল হোসেন অপু, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. সাখাওয়াত হোসেন, সিভিল সার্জন আব্দুল্লাহ আল মুরাদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইফুর রহমান পিপিএম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) তানভীর হায়দার শাওন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, নড়িয়া পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ।

পুলিশ সুপার এস.এম. আশরাফুজ্জামান বলেন, দাবা একটি জনপ্রিয় ঠাণ্ডা মস্তিষ্কের ও বুদ্ধিমত্তার খেলা। দাবা খেলাটি প্রথম ভারতবর্ষে শুরু হয়। 

বাংলাদেশ থেকে বিশ্বমানের দাবারু বের করার জন্য এ খেলাকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। তারই ধারাবাহিকতায় শরীয়তপুরে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।

তিন দিনব্যাপী এ প্রতিযোগিতায় মোট দশটি দল অংশ নিচ্ছে। দলগুলো হলো-জেলা পুলিশ দাবা দল, মোল্লা আবুল কাশেম ফাউন্ডেশন দাবা দল, ডিসিসি দাবা দল, অরুনিমা সংগঠন দাবা দল, সকাল সন্ধ্যা স্পোর্টস দাবা দল, চৌরঙ্গি দাবা সংঘ, মা বাবা দোয়া স্মৃতি সংঘ, চেস রিসার্চ সেন্টার, চ্যাম্প রিসর্চ সেন্টার কুইন ও রিসার্চ সেন্টার নাইট।