• শুক্রবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ২ ১৪২৮

  • || ০৯ সফর ১৪৪৩

শরীয়তপুর বার্তা

দেড় বছরে ১৬ হাজার করোনা বেড স্থাপন করেছি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৩ আগস্ট ২০২১  

করোনা মহামারির প্রকোপের প্রায় দেড় বছরে ১৬ হাজার করোনা বেড স্থাপন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন। মন্ত্রী বলেন, এই সময়ে আমরা ১০০টি সেন্ট্রাল অক্সিজেন লাইন স্থাপন করেছি, ৬৫০টি ল্যাবে ৫০ হাজার নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। একই হাসপাতালে সাধারণ রোগী, করোনা ও ডেঙ্গু রোগীদের আলাদাভাবে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রী।

সোমবার (২ আগস্ট) বিকাল ৫টার দিকে ঢাকা থেকে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে সিরাজগঞ্জে হাসপাতালের বহিঃবিভাগ সেবার উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথঅ বলেন।

শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আউটডোরের পাশাপাশি ইনডোরে করোনা রোগীর চিকিৎসা দেওয়া হবে।

সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রয়াত মোহাম্মদ নাসিমকে বারবার স্মরণ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘মোহাম্মদ নাসিম শুধু জাতীয় নেতা ছিলেন না, তিনি আমার বড় ভাইয়ের মতো ছিলেন। আমাদের অনেক কিছু শিখিয়েছেন। তার হাতে গড়া এ প্রতিষ্ঠানটিতে মানুষ যাতে সঠিক চিকিৎসা পায় সে লক্ষ্যেই আমরা কাজ করবো এবং আমার মানিকগঞ্জের আগে সিরাজগঞ্জের এই হাসপাতালটির কাজ পূর্ণাঙ্গভাবে শেষ করবো।’

সিরাজগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্নার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সচিবালয় প্রান্ত থেকে বক্তব্য দেন সিনিয়র সচিব (স্বাস্থ্যসেবা) লোকমান হোসেন মিয়া, স্বাস্থ্যশিক্ষা ও পরিকল্পনা বিভাগের সচিব মো. আলী নূর, অতিরিক্ত সচিব সাইদুর রহমান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবিএম খোরশেদ আলম, সিরাজগঞ্জ প্রান্তে বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহাম্মদ, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কে এম হোসেন আলী হাসান, চেম্বার সভাপতি আবু ইউসুফ সূর্য, শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. আমিরুল হোসেন চৌধুরী, সঞ্চালনায় ছিলেন লাইন ডাইরেক্টর ডা. সামিউল ইসলাম। ২০১৫ সালে ৮৮২ কোটি ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে ৩০.৯০ একর জায়গার উপর শহরের পাশেই শিয়ালকোল এলাকায় শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ ও ৫০০ শয্যার হাসপাতাল নির্মাণকাজ শুরু হয়। আগামী ডিসেম্বরে পূর্নাঙ্গভাবে চালু হবে হাসপাতালটি। তবে এক বছর আগেই আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হয়েছে মেডিকেল কলেজের কার্যক্রম।