• রোববার   ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২৩ ১৪২৯

  • || ১৪ রজব ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:

মৌলবাদ ঠেকাতে সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড ছড়িয়ে দিতে হবে: রেলমন্ত্রী

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ২৮ নভেম্বর ২০২২  

মৌলবাদ, পাকিস্তানপন্থি ধর্মীয় রাজনীতি মোকাবিলা করতে ঘরের মধ্যে আবদ্ধ সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডকে ঘরের বাইরে ছড়িয়ে দিতে হবে মন্তব্য করে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, গ্রামাঞ্চলের নিজস্ব সংস্কৃতি, যাত্রাপালা এগুলো সীমিত হয়ে গেছে, এগুলো যেন আরও ছড়িয়ে দেওয়া যায় সেভাবে কাজ করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা যদি বাস্তবায়ন করতে চাই, বঙ্গবন্ধুর অর্থনৈতিক স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে হলে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে।

রোববার (২৭ নভেম্বর) সন্ধ্যায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক পরিষদ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব মন্তব্য করেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, পাকিস্তানবিরোধী আন্দোলনের সময় সাংস্কৃতিক ধারা ছিল স্পষ্ট। সেই ধারাকে ধারণ করেই এ অঞ্চলের রাজনীতি এগিয়েছিল। স্লোগান ছিল 'পদ্মা, মেঘনা, যমুনা তোমার আমার ঠিকানা', 'তুমি কে, আমি কে, বাঙালি, বাঙালি', 'জয় বাংলা'। তার ফলশ্রুতিতে মুক্তিযুদ্ধ।  

'ছয় দফা আন্দোলনই বলেন, পরবর্তীকালে মুক্তিযুদ্ধের কথায় বলেন সংস্কৃতিই এগিয়ে নিয়েছে। একটি অসাম্প্রদায়িক, সাংস্কৃতিক চিন্তাবোধের এ অঞ্চলের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে রেখেছিল সংস্কৃতি অঙ্গন।

এটার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছিল ধর্মভিত্তিক শক্তি। আরও বেশি স্পষ্ট হয় পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পরে। তারা ক্ষমতায় এসে আবারও পাকিস্তানি ধ্যানধারণায় পরিচালনায় কর্মকাণ্ড করে বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের সরকার ক্ষমতায় এসেছিলো মন্তব্য করে মন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যেতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধরে রাখতে হলে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড ছড়িয়ে দিতে হবে, চর্চা করতে হবে।  

বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি পীরজাদা শহীদুল হারুনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন।