• রোববার ২১ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৬ ১৪৩১

  • || ১৩ মুহররম ১৪৪৬

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ২১ জুলাই স্পেন যাবেন প্রধানমন্ত্রী আমার বিশ্বাস শিক্ষার্থীরা আদালতে ন্যায়বিচারই পাবে: প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার আন্দোলনে প্রাণহানি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করা হবে মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে : প্রধানমন্ত্রী পবিত্র আশুরা মুসলিম উম্মার জন্য তাৎপর্যময় ও শোকের দিন আশুরার মর্মবাণী ধারণ করে সমাজে সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার আহ্বান মুসলিম সম্প্রদায়ের উচিত গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়া নিজেদের রাজাকার বলতে তাদের লজ্জাও করে না : প্রধানমন্ত্রী দুঃখ লাগছে, রোকেয়া হলের ছাত্রীরাও বলে তারা রাজাকার শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস আজ

আইসল্যান্ডের প্রেসিডেন্টের কাছে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের পরিচয় পেশ

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

আইসল্যান্ডে নবনিযুক্ত বাংলাদেশের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত এ কে এম শহীদুল করিম দেশটির প্রেসিডেন্টের কাছে তার পরিচয়পত্র পেশ করেছেন। মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আইসল্যান্ডের রাজধানী রেইকাভিকে ‘প্রেসিডেন্সি ভবন বেসাসতাদিরে’ আনুষ্ঠানিকভাবে প্রেসিডেন্ট গুডনি থরলাসিয়াস জোহানসনের কাছে তার পরিচয়পত্র পেশ করেন।

বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পরিচয়পত্র পেশের পর আইসল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট এবং বাংলাদেশের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূতের মধ্যে একান্ত এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে আইসল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট গুরুত্বপূর্ণ এ দায়িত্ব গ্রহণের জন্য রাষ্ট্রদূতকে অভিনন্দন জানান।

এসময় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত প্রেসিডেন্ট গুডনি থরলাসিয়াস জোহানসনকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং তাকে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা পৌঁছে দেন।

বাংলাদেশ ও আইসল্যান্ডের মধ্যে বিদ্যমান চমৎকার বন্ধুত্বপূর্ণ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত বন্ধুত্বপূর্ণ দুই দেশের স্বার্থে পারস্পরিক সহযোগিতার নতুন ক্ষেত্র চিহ্নিতকরণের মাধ্যমে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরও জোরদার করতে যথাসম্ভব অবদান রাখার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

শহীদুল করিম বাংলাদেশের উন্নয়ন বিশেষত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং বিভিন্ন আর্থসামাজিক সূচকে ক্রমাগত ঊর্ধ্বমুখী অগ্রগতির কথা উল্লেখ করে আইসল্যান্ডের প্রেসিডেন্টকে দুদেশের সম্ভাবনাময় খাত হিসেবে তথ্যপ্রযুক্তি, পর্যটন, পোশাকশিল্প, শিক্ষা, সংস্কৃতিসহ অন্যান্য খাত সম্পর্কে অবহিত করেন এবং জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের নানা ইতিবাচক পদক্ষেপ তুলে ধরেন। রাষ্ট্রদূত আইসল্যান্ডের প্রেসিডেন্টকে বাংলাদেশ সফরেরও আমন্ত্রণ জানান।

আইসল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানান। তিনি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রা, নারীর ক্ষমতায়ন, শান্তি প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশের শান্তিরক্ষী বাহিনীর অবদান এবং জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বাংলাদেশের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ ও উদ্যোগ গ্রহণের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় দুই দেশ একসঙ্গে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

আইসল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে দায়িত্ব পালনে আইসল্যান্ডের সরকারের সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও আইসল্যান্ড এই দুটি শান্তিকামী দেশ দুই দেশের জনগণের উন্নয়ন, শান্তি, সমৃদ্ধি ও মানবতার সেবায় একসঙ্গে কাজ করে যাবে। প্রেসিডেন্ট তার সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফরের আগ্রহ ব্যক্ত করেন।