• সোমবার   ১৬ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৯

  • || ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩

শরীয়তপুর বার্তা

এক টাকা সমান পাকিস্তানের প্রায় সোয়া ২ রুপি

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১২ মে ২০২২  

নারীর ক্ষমতায়ন, বেকারত্ব দূর, অর্থনৈতিক উন্নয়নসহ নানা ক্ষেত্রে দক্ষিণ এশিয়ার অনেক দেশ থেকেই এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ। ৯ মাস রক্তক্ষয়ী মহান মুক্তিযুদ্ধের বিনিময়ে যে পাকিস্তান থেকে স্বাধীনতা লাভ করেছে বাংলাদেশ, সেই পাকিস্তান থেকেও অনেক ক্ষেত্রে এগিয়ে বাংলাদেশ। এবার মুদ্রার মানেও পাকিস্তানকে অনেক পেছনে ফেললো বাংলাদেশ। টাকার মান দ্বিগুণ ছাড়িয়েছে পাকিস্তানি রুপির চেয়ে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এখন বাংলাদেশকে আইডল মনে করে। খোদ পাকিস্তানের সরকারপ্রধানরাও বিভিন্ন সময় বাংলাদেশকে আইডল হিসেবে মূল্যায়ন করেছেন। যে দেশটির অধীন থেকে স্বাধীন হয়েছে বাংলাদেশ, এখন সেই দেশটির কাছ থেকে প্রায়ই বিভিন্ন অগ্রগতির প্রশংসা অর্জন করছে বাংলাদেশ।

স্বাধীনতার পরপরই বাংলাদেশের ১৬৫ টাকা সমান ছিল পাকিস্তানের ১০০ রুপি। স্বাধীনতার ৫০ বছরে এসে এখন ঠিক তার উল্টো চিত্র। দেশটির চেয়ে বাংলাদেশি মুদ্রার মান বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে।

গত বছরের ২২ সেপ্টেম্বর পাকিস্তানি রুপির চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ হয় টাকার মান। অর্থাৎ এক টাকা সমান পাকিস্তানের দুই রুপি (১.৯৮ পয়সা)। আর বৃহস্পতিবার (১২ মে) কারেন্সি এক্সচেঞ্জ (এক্সই) এর তথ্যমতে, বাংলাদেশের এক টাকা সমান পাকিস্তানের ২.২০ রুপি (২.১৯৭৭)।

মূলত ২০০৮ সালকে ধরা হয় পাকিস্তানের রুপির বিনিময় হারের পতনের বছর। ওই বছর মূল্যস্ফীতি বেড়ে যাওয়ায় ডলারের বিপরীতে রুপির দর ৬১ থেকে এক ধাক্কায় ৭৯ রুপিতে পৌঁছায়। ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে এক ডলারের বিপরীতে পাকিস্তানকে ব্যয় করতে হয়েছে ১০৪ থেকে ১০৫ রুপি, ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে এক ডলার সমান ১০৯ রুপি ছিল।

আর বৃহস্পতিবার (১১ মে) কারেন্সি এক্সচেঞ্জ (এক্সই) এর তথ্যমতে, এক ডলার সমান পাকিস্তানের ১৯০.৭৯ রুপি।