• বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী আইসিওয়াইএফ থেকে পাওয়া সম্মাননা প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর শিক্ষা ব্যবস্থা যাতে পিছিয়ে না যায় সে ব্যবস্থা নিচ্ছি প্লিজ যুদ্ধ থামান, সংঘাত থামাতে সংলাপ করুন: শেখ হাসিনা হানিফের সংগ্রামী জীবন নতুন প্রজন্মের রাজনৈতিক কর্মীদের দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করবে মোহাম্মদ হানিফ ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন পরীক্ষিত নেতা বাংলাদেশ যেন দুর্ভিক্ষের কবলে না পড়ে: প্রধানমন্ত্রী সংঘাত-দুর্যোগে নারীদের দুর্দশা বহুগুণ বাড়ে: প্রধানমন্ত্রী ১০ ডিসেম্বর বিএনপির মহাসমাবেশ, পরিবহন ধর্মঘট না ডাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর সচিবদের যেসব নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

শুঁয়োপোকা থেকে তৈরি সুস্বাদু চকোলেট

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৬ জুলাই ২০২২  

নতুন প্রকার চকোলেটের স্বাদ চেখে দেখতে কার না ভালো লাগে? যদি সেই চকোলেট হয় প্রোটিনে ভরপুর, তাহলে তো কথাই নেই। আচ্ছা ধরুন, আপনি জানতে পারলেন কোনো চকোলেট আদতে শুঁয়োপোকা দিয়ে তৈরি! তখনো কি খেতে ইচ্ছা করবে সেটি? পারবেন কি মুখে তুলতে?

দক্ষিণ আফ্রিকার এক কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার ওয়েনডি ভেসেলা শুঁয়োপোকা থেকে চকোলেট তৈরি করে সবাইকে চমকে দিয়েছেন। শুঁয়োপোকা থেকেও এত সুস্বাদু চকোলেট তৈরি করা যায় তা চেখে দেখে হতবাক ক্রেতারাও।

শুঁয়োপোকা থেকেই ওয়েনডি তৈরি করেছেন ময়দা। আর সেই ময়দা দিয়েই বানানো হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের চকোলেট, বিস্কুট, কেক, প্রোটিনবার। ‘মোপেন ওয়র্ম’ নামে পরিচিত এই বিশেষ শুঁয়োপোকাটির দেহে থাকা প্রোটিনকে কাজে লাগিয়ে বানানো হচ্ছে সেই সব বিশেষ চকোলেট সামগ্রী।

ওয়েনডি জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই তার কাছে দেশ বিদেশ থেকে গ্রাহকরা আসছেন। তার বানানো এই অভিনব চকোলেট বেশ জনপ্রিয় হচ্ছে আফ্রিকায়। সম্প্রতি এক খাদ্যমেলায় ওয়েন্ডির তৈরি এই প্রোটিনবার ও চকোলেটের প্রদর্শনও করা হয়েছে। সেই মেলায় তার এই উদ্যোগ দারুণ প্রশংসা পেয়েছে।

অনেকেই বলেছেন, তারা একেবারেই পোকা খেতে পছন্দ করেন না। কিন্তু এই চকোলেট খেলে মনেই হচ্ছে না যে এটি শুঁয়োপোকা দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। এই চকোলেটের স্বাদ অতুলনীয়।

বাণিজ্যিক স্বার্থে এই বিশেষ ধরনের শুঁয়োপোকার চাষ আরো বাড়ানোর কথা বলেছেন ওয়েনডি। ভবিষ্যতে নিজের এই ব্যবসা আরো বাড়ানোর পরিকল্পনা করছেন তিনি।

এই ধরনের শুঁয়োপোকার দেহে রয়েছে প্রোটিন ও আয়রন। এই বিশেষ প্রজাতির শুঁয়োপোকা চাষ করা খুব সহজ। ‘মোপেন ওয়র্ম’ পরিবেশবান্ধব। এই শুঁয়োপোকার চাষ করা পরিবেশের জন্য ক্ষতিকারক নয়। মোপেন নামের গাছেই থাকে এই শুঁয়োপোকা। আফ্রিকার দক্ষিণপ্রান্তের শুকনো অঞ্চলে এই শুঁয়োপোকার আধিক্য দেখা যায়। নিজেদের জন্য প্রয়োজনীয় পুষ্টি এরা মোপেন গাছ থেকেই শুষে নেয়। আলাদা করে পানি বা জমির প্রয়োজন পড়ে না এদের জন্য।