• শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২১ ১৪২৯

  • || ১৩ রজব ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় আরেকটি মাইলফলক স্থাপিত হলো: প্রধানমন্ত্রী জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী ২০২২ সালে বিদেশে গেছেন ১১ লাখ ১৩ হাজার ৩৭৪ কর্মী: প্রধানমন্ত্রী পাতাল রেল নির্মাণকাজের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী সাগরের পানি থেকে হাইড্রোজেন বিদ্যুৎ উৎপাদনে আলোচনা চলছে

হাত-পা ঠান্ডা হয়ে যাওয়া যেসব রোগের লক্ষণ

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৮ নভেম্বর ২০২২  

ঠান্ডা আবহাওয়া বা শীতে হাত-পা খোলা থাকলে তা ঠান্ডা হওয়া স্বাভাবিক। তবে হাত-পা ঢেকে রাখার পরেও যদি তা অনুভূত হয় বা সহজে গরম না হয় কিংবা ঠান্ডায় অবশ বোধ করলে তা হতে পারে শারীরিক কোনো সমস্যার লক্ষণ। জেনে নিন হাত-পা ঠান্ডা হয়ে যাওয়ার কয়েকটি সম্ভাব্য কারণ-

হাইপোথাইরয়েডিজম

থাইরয়েডের সমস্যায় নারী-পুরুষ উভয়ই ভোগেন। থাইরয়েড হলো শরীরে শক্তির ভারসাম্য রক্ষাকারী গ্রন্থি। হাইপোথাইরয়েডিজমের ক্ষেত্রে এই গ্ল্যান্ডে দেখা দেয় সমস্যা। তখন থাইরয়েড গ্রন্থি থেকে সঠিক পরিমাণে থাইরয়েড হরমোন বের হয় না। এই রোগের লক্ষণ হিসেবেই হাত-পা ঠান্ডা হয়ে যায় কিংবা প্রচণ্ড শীত অনুভব করার সমস্যা দেখা দেয়।

ফলে শরীরে দেখা দেয় হরমোনের ভারসম্যহীনতা। এ রোগে আক্রান্ত রোগীরও শরীর গরম রাখতে সমস্যা হয়। তাই হাত-পা প্রায়ই ঠান্ডা থাকতে পারে। বেশি সমস্যা হলে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।

রেনৌডস ডিজিজ

আপনার যদি হাইপোথাইরয়েডিজমের সমস্যা না হয় সেক্ষেত্রে হতে পারে রনৌডস ডিজিজ। এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির হাত,পায়ের ছোটছোট রক্তনালি বন্ধ হয়ে যায়। ফলে গরম রক্ত সেই হাত, পায়ে পৌঁছাতে পারে না। ফলে হাত-পা ঠান্ডা থাকে।

ডায়াবেটিস

আপনার সুগার নিয়ন্ত্রণে না থাকলেও দেখা দিতে পারে এই সমস্যা। এক্ষেত্রে অনিয়ন্ত্রিত সুগার থেকে মানুষ আক্রান্ত হতে পারেন পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথিতে।

ফলে পায়ের স্নায়ু ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এছাড়া ডায়াবেটিস থেকেও দেখা দিতে পারে পেরিফেরাল আর্টারি ডিজিজ। এই রোগে আক্রান্ত হলে রক্তনালির অন্দরে রক্তপ্রবাহে দেখা দেয় সমস্যা।

দুশ্চিন্তা

অবাক করা বিষয় হলেও সত্যিই যে, হাত-পা ঠান্ডা থাকার কারণ হতে পারে মানসিক দুশ্চিন্তাও। এক্ষেত্রে দুশ্চিন্তা, উৎকণ্ঠা শরীরে এপিনেফ্রিন হরমোনের পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। ফলে শরীরে দেখা দেয় সমস্যা। তখন হাত-পায়ে রক্তপ্রবাহ কমে।

হাই কোলেস্টেরল

ভালো কোলেস্টেরল যেমন শরীরের জন্য অনেক উপকারী, ঠিক তেমনই খারাপ কোলেস্টরল হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ায়। কোলেস্টেরল রক্তনালির ভেতরে জমলে দেখা দিতে পারে মারাত্মক সমস্যা। তখন হাত-পায়ে ঠান্ডা লাগতে পারে।

কীভাবে গরম থাকবেন?

শীতে বা ঠান্ডা আবহাওয়ায় পানি খাওয়ার পরিমাণ কমিয়ে দেন সবাই। যা পানিশূন্যতার কারণ হতে পারে। এ কারণে কিডনিও বিকল হতে পারে। তাই প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন। শরীর হাইড্রেট রাখতে পারলে এই সমস্যা এনেকটাই দূর হয়।

শরীরে পানির জোগান থাকলে তা আপনার রক্তকে তরল করে দিতে পারবে। ফলে রক্তপ্রবাহ সঠিকভাবে হবে। তাই হাত-পা হবে গরম। এছাড়া হাত-পা ঠান্ডা থাকার কারণ জানতে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।