• শনিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৯

  • || ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
যারা উন্নয়ন দেখে না, তারা চাইলে চোখের ডাক্তার দেখাতে পারে- প্রধানমন্ত্রী অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সক্ষম হয়েছি: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আইওআরএ মন্ত্রীদের সাক্ষাৎ যোগাযোগ সম্প্রসারণে বাংলাদেশের সহযোগিতা চায় আমিরাত আ.লীগ স্বাস্থ্য খাতকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়: প্রধানমন্ত্রী এমপিদের ভবন প্রাঙ্গণে মীনা বাজার স্থাপন আনন্দের: স্পিকার ব্যাংকে টাকা না থাকার গুজবে চোরেরা সুযোগ নেবে: প্রধানমন্ত্রী ‘যা চাইবেন তার চেয়ে বেশি দেবো, ওয়াদা দেন নৌকায় ভোট দেবেন’ মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন সচিব সভায় ১০ নির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

রাশিয়াকে ‘উসকানি দিচ্ছে’ পশ্চিমারা: এরদোয়ান

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৮ সেপ্টেম্বর ২০২২  

তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান বলেছেন, ইউক্রেন যুদ্ধে রাশিয়া সম্পর্কিত তুরস্কের অবস্থান ‘ভারসাম্যমূলক’। পশ্চিমা দেশগুলো রাশিয়াকে ‘উসকানি’ দিচ্ছে। বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই মন্তব্য করেছেন। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এখবর জানিয়েছে।

ইউক্রেন যুদ্ধে নিরপেক্ষ অবস্থান নেওয়ার চেষ্টা করলেও রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে সম্পর্ক টিকিয়ে রেখেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট। সংঘাত অবসানের জন্য মধ্যস্থতা করলেও ইউক্রেনকে অস্ত্র ও যুদ্ধের ড্রোন সরবরাহ করেছে আঙ্কারা।

বেলগ্রেড সফরে বুধবার সাংবাদিকদের এরদোয়ান বলেছেন, নর্ড স্ট্রিম পাইপলাইন দিয়ে জার্মানিতে পাঠানো প্রাকৃতিক গ্যাসের সরবরাহ বন্ধ করতে পুতিন যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তা অনুধাবন করতে পারছেন তিনি।

এরদোয়ান বলেন, আমি খুব স্পষ্টভাবে কোনও নাম উল্লেখ না করেও বলতে পারি পশ্চিমাদের মনোভাব বুঝতে পারিনি। কারণ এই নীতি উসকানির ওপর ভিত্তিতে রচিত।

এরদোয়ান আরও বলেন, যতদিন পর্যন্ত কেউ এমন যুদ্ধের উসকানি দেবে ততদিন যা চাইবে তা পাবে না।

ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি ও রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক কাজে লাগিয়ে সংঘাত বন্ধে মধ্যস্থতার চেষ্টা করেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট। কিন্তু তার এসব উদ্যোগ বিফলে গেছে।

তিনি বলেন, তুরস্ক সর্বদা ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে ভারসাম্যমূলক নীতি বজায় রেখেছে। আমরা এখনও সেই ভারসাম্যমূলক নীতি বজায় রাখব।

আগামী সপ্তাহে উজবেকিস্তানে আঞ্চলিক সম্মেলনে পুতিনের সঙ্গে বৈঠক হতে পারে এরদোয়ানে। এই সম্মেলনে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংও অংশগ্রহণ করবেন।

ইউক্রেনে আক্রমণের কারণে পশ্চিমাদের নিষেধাজ্ঞার প্রবণতায় যোগ দেয়নি তুরস্ক। সম্প্রতি মস্কোর সঙ্গে একটি নতুন অর্থনৈতিক সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষর করেছে দেশটি।