• শনিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৯

  • || ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
যারা উন্নয়ন দেখে না, তারা চাইলে চোখের ডাক্তার দেখাতে পারে- প্রধানমন্ত্রী অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সক্ষম হয়েছি: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আইওআরএ মন্ত্রীদের সাক্ষাৎ যোগাযোগ সম্প্রসারণে বাংলাদেশের সহযোগিতা চায় আমিরাত আ.লীগ স্বাস্থ্য খাতকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়: প্রধানমন্ত্রী এমপিদের ভবন প্রাঙ্গণে মীনা বাজার স্থাপন আনন্দের: স্পিকার ব্যাংকে টাকা না থাকার গুজবে চোরেরা সুযোগ নেবে: প্রধানমন্ত্রী ‘যা চাইবেন তার চেয়ে বেশি দেবো, ওয়াদা দেন নৌকায় ভোট দেবেন’ মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন সচিব সভায় ১০ নির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

আনুষ্ঠানিকভাবে ব্রিটেনের রাজা হলেন চার্লস

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২  

ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুর পর আনুষ্ঠানিকভাবে তার বড় সন্তান তৃতীয় চার্লসকে রাজা ঘোষণা করেছে অ্যাকসেশন কাউন্সিল। এখন থেকে ব্রিটেনের নতুন রাজা হলেন চার্লস ফিলিপ আর্থার জর্জ।

লন্ডনের স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় সেন্ট জেমস প্রাসাদে কাউন্সিলের শুরু হওয়া অনুষ্ঠানের প্রথম ধাপ শেষ হয়েছে। সেখানে রাজপরিবারের সদস্য ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্যদের উপস্থিতিতে প্রিন্স চার্লসকে দেশের নতুন রাজা হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

সেন্ট জেমস প্রাসাদে অ্যাকসেশন কাউন্সিলে উপস্থিত রাজা চার্লস ফিলিপ আর্থার জর্জ- ছবি: সংগৃহীত

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন লর্ড প্রেসিডেন্ট পেনি মর্ডান্ট। রাজা ঘোষণার পরে যেসব আনুষ্ঠানিকতা রয়েছে তা উল্লেখ করেন পেনি মর্ডান্ট। জেমস প্রসাদের অ্যাকসেশন কাউন্সিলে উপস্থিত হন অন্তত ২০০ জ্যেষ্ঠ মন্ত্রী। 

এর আগে, অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন রাজা তৃতীয় চার্লস ও তার স্ত্রী ক্যামিলা পার্কার। ভাষণে প্রয়াত মা রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে স্মরণ করেন চার্লস। নিয়ম অনুযায়ী স্কটল্যান্ডের চার্চের নিরাপত্তা রক্ষা সম্পর্কিত একটি শপথে স্বাক্ষর করেন তিনি।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, রাজার আনুষ্ঠানিক যাত্রার সাক্ষী হতে আশপাশে জড়ো হন বহু মানুষ। প্রাসাদের বাইরের গেটের দিকে লক্ষ্য করা গেছে ভিড়। উপস্থিতরা বলছেন, তারা রাজা তৃতীয় চালর্সের আনুষ্ঠানিক শপথ গ্রহণকে কেন্দ্র করেই জড়ো হয়েছেন। অনুষ্ঠান কাভারের জন্য সাংবাদিকদেরও ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। 

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, অ্যাকসেশন কাউন্সিলে ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন, টনি ব্লেয়ার, থেরেসা মেসহ অনেকে উপস্থিত হয়েছেন।