• বুধবার ০৪ অক্টোবর ২০২৩ ||

  • আশ্বিন ১৯ ১৪৩০

  • || ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা

যুক্তরাষ্ট্রের প্রশিক্ষিত আফগানদের যুদ্ধে পাঠাচ্ছে রাশিয়া

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১ নভেম্বর ২০২২  

আফগান স্পেশাল ফোর্সের সেনা যারা আমেরিকার কাছে প্রশিক্ষণ নিয়ে তাদের সঙ্গে তালেবানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেছিলেন তাদেরকে ইউক্রেন যুদ্ধে পাঠাচ্ছে রাশিয়া। গত বছর আফগানিস্তান থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহারের পরে ইরানে পালিয়ে যান তারা। এখন ইউক্রেনে যুদ্ধের জন্য রাশিয়ান সেনাবাহিনী নিয়োগ করছে তাদের। এপির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে এসব তথ্য।

তিনজন সাবেক আফগান জেনারেল এপি নিউজ এজেন্সিকে জানান, রাশিয়ানরা হাজার হাজার সাবেক অভিজাত আফগান কমান্ডোকে একটি ‘বিদেশি সৈন্যদল’-এ আকৃষ্ট করতে চায়। তাদের মাসিক বেতন দেওয়া হবে ১ হাজার ৫০০ ডলার। তাদের নিজেদের ও পরিবারের একটি নিরাপদ আশ্রয়ের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হচ্ছে যাতে তারা নির্বাসন এড়াতে পারে। কারণ অনেকেরই ধারণা তালেবানদের হাতে তাদের মৃত্যু হতে পারে।

জেনারেল আব্দুল রওফ আরগান্দিওয়াল বলেছেন, তারা যুদ্ধে যেতে চায় না, তবে তাদের কোনও বিকল্প নেই। ইরানের ডজনেরও বেশি কমান্ডো যাদের সঙ্গে তিনি দীর্ঘ দিন কাজ করেন তারা বার্তা পাঠিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, ‘তারা আমাকে জিজ্ঞেস করছিলেন যে, আমাকে সমাধান দিন? আমি এখন কি করবো? যদি আমরা আফগানিস্তানে ফিরে যাই? তালেবান আমাদের মেরে ফেলবে’।

আরগান্দিওয়াল বলেছেন যে নিয়োগের নেতৃত্বে রয়েছে রাশিয়ান ভাড়াটে বাহিনী ওয়াগনার গ্রুপ।

আরেকজন জেনারেল, হিবাতুল্লাহ আলিজাই, তালেবানের ক্ষমতা গ্রহণের আগে শেষ আফগান সেনাপ্রধান যিনি, বলেছেন যে এই প্রচেষ্টাটিকে একজন সাবেক আফগান স্পেশাল ফোর্সের কমান্ডারও সাহায্য করছেন যিনি রাশিয়ায় থাকতেন এবং তাদের ভাষাতে কথা বলেন।

রাশিয়ান নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান কয়েক মাস ধরে এ বিষয়ে অনুসরণ করছিল এবং সতর্কবার্তা দিচ্ছিল যে তালেবান তাদের হত্যা করতে পারে এবং তারা বেঁচে থাকার জন্য বা তাদের পূর্ববর্তী মিত্রের রাগ করার জন্য মার্কিন শত্রুদের সঙ্গে যোগ দিতে পারে।

গত আগস্টে রিপাবলিকান পার্টির কংগ্রেসনাল রিপোর্টে বিশেষভাবে এ বিপদ সম্পর্কে সতর্ক করা হয়েছে যে আফগান কমান্ডোরা - ইউএস নেভি সিল এবং আর্মি গ্রিন বেরেটস দ্বারা প্রশিক্ষিত ইসলামিক স্টেট গ্রুপ, ইরান বা রাশিয়াকে মার্কিন কৌশল সম্পর্কে তথ্য দিতে পারে বা তাদের পক্ষে যুদ্ধ করতে পারে।

আফগানিস্তানে নিযুক্ত অবসরপ্রাপ্ত সিআইএ কর্মকর্তা মাইকেল মুলরয় বলেছেন,‘আমি তাদের কোনও যুদ্ধক্ষেত্রে দেখতে চাই না। তারা অত্যন্ত দক্ষ এবং ভয়াবহ যোদ্ধা’।