• শনিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৯

  • || ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
যারা উন্নয়ন দেখে না, তারা চাইলে চোখের ডাক্তার দেখাতে পারে- প্রধানমন্ত্রী অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সক্ষম হয়েছি: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আইওআরএ মন্ত্রীদের সাক্ষাৎ যোগাযোগ সম্প্রসারণে বাংলাদেশের সহযোগিতা চায় আমিরাত আ.লীগ স্বাস্থ্য খাতকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়: প্রধানমন্ত্রী এমপিদের ভবন প্রাঙ্গণে মীনা বাজার স্থাপন আনন্দের: স্পিকার ব্যাংকে টাকা না থাকার গুজবে চোরেরা সুযোগ নেবে: প্রধানমন্ত্রী ‘যা চাইবেন তার চেয়ে বেশি দেবো, ওয়াদা দেন নৌকায় ভোট দেবেন’ মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন সচিব সভায় ১০ নির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

হতাশা ও দুশ্চিন্তা কমানোর ঘরোয়া উপায়

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২  

জীবনে চিন্তা, দুশ্চিন্তা কিংবা জটিলতা এটা থাকবেই। এর বাইরে মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। বাস্তবতার সঙ্গে চাওয়া-পাওয়ার অসঙ্গতি থেকেই তৈরি হয় হতাশা। যা ধীরে ধীরে রুপ নেয় দুশ্চিন্তায়। আর এই হতাশা ও দুশ্চিন্তা থেকে মুক্তি দিতে পারে কিছু সহজ উপায়।

সমস্যা যখন রয়েছে তার সমাধানও রয়েছে। তবে সবসময় ডাক্তারের কাছে গিয়ে ওষুধ খাবার প্রয়োজন নেই। কিছু বিষয়ে ঘরোয়া টোটকা বা প্রাকৃতিক উপায়েও সমস্যার সমাধাণ করা সম্ভব। দুশ্চিন্তা বা হতাশার ক্ষেত্রে এমনই কিছু পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। 

চলুন দেখে নেওয়া যাক টোটকাগুলো কী কী-
২০১৬ সালে ফাইটোমেডিসিন নামের একটি জার্নাল প্রকাশ করা হয়। সেখানে মন শান্ত রাখার জন্য ক্যামোমাইল ফুল খাবারের সঙ্গে মিশিয়ে খাওয়া ঠিক কি ঠিক নয় তা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে চায়ের মাধ্যমে এই ফুলের স্বাদ নেওয়া যেতে পারে। তবে এর কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও থাকতে পারে। তাই ডাক্তারদের পরামর্শ নিয়েই এটি খেতে হবে।

ল্যাভেন্ডারের গন্ধ মন শান্ত করে। এমনটাই বলেন অনেকে। ঘুমানোর সময় একটু বালিশে দু’ফোঁটা ল্যাভেন্ডালের এসেন্স লাগিয়ে দিতে পারেন। অথবা স্নানের সময় পানিতে ল্যাভেন্ডারের এসেন্স মিশিয়ে নিতে পারেন। এতে আরাম মিলবে। 

শরীরচর্চা ও যোগাভ্যাস এই দুই উপায়ে যেমন শরীর ফিট থাকে তেমনই এতে মন ভাল থাকে। পরিশ্রমের মাধ্যমে অনেক হতাশা-দুশ্চিন্তা বিষয় মন থেকে ঝেড়ে ফেলা সম্ভব হয়। আবার যোগাভ্যাসের মাধ্যমেও একাগ্রতা বাড়ে। ফলে যেকোন বিষয়ে ভেবে সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ হয়।

ঘুম ভাঙানোর জন্য কিংবা কাজের ফাঁকে কফির কাপে চুমুক দেওয়ার অভ্যাস অনেকেরই রয়েছে। কিন্তু শরীরে ক্যাফেনের পরিমাণ বেশি হলে ঘুম কমে যায়। এতে মনও অশান্ত হয়ে ওঠে।