• শনিবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৩ ১৪২৮

  • || ১০ সফর ১৪৪৩

শরীয়তপুর বার্তা

বঙ্গবন্ধুর হত্যার ক্ষেত্র প্রস্তুতকারীরা অপরাধী: উপমন্ত্রী শামীম

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১৭ আগস্ট ২০২১  

শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন,জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সরাসরি যারা হত্যা করেছে তারা যেমন অপরাধী তেমনি যারা এই হত্যাকাণ্ডের ক্ষেত্র তৈরি করেছিল তারাও সমান অপরাধী।  তাদেরও চিহ্নিত করা এবং বিচারের আওতায় আনা জরুরি ছিল।

মঙ্গরবার (১৭ আগস্ট) বিকালে শরীয়তপুর জেলার সখিপুর থানার সখিপুর ইসলামিয় উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সখিপুর থানা আওয়ামীলীগ এর উদ্যোগে জাতির পিতার ৪৬ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যর এসব কথা বলেন।

উপমন্ত্রী শামীম আরো বলেন,‘১৯৭২ সালে থেকেই ষড়যন্ত্রের শুরু হয়। প্রথমে মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে বিভক্তি, পরে জাসদ সৃষ্টি হলো। যারা পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর দোসর তাদের অনেকেই পাকিস্তানের পাসপোর্ট নিয়ে চলে গেল, আর যারা এদেশে ছিল তারা হঠাৎ উধাও হয়ে গেল। তারা সবাই আন্ডার গ্রাউন্ড পার্টির সঙ্গে মিশে গিয়েছিল।’

‘আজকে আপনারা এই ঘটনার পেছনে কারা আছে সেটা জানতে খুঁজে বেড়াচ্ছেন, বেশি খোঁজার দরকার নেই। আপনারা আমাদের দেশের সে সময়ের পত্রপত্রিকা পড়েন। তখনকার যাদের বক্তব্য বের করেন। আপনাদের কাছে সব স্পষ্ট হয়ে যাবে। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর বছরের পর বছর লেগে যায় একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ গড়তে। সেখানে একটি বছর সময় দেওয়া হলো না। সাথে সাথে সমালোচনা করা হলো। আর ধৈর্য ধরা হলো না- এটা নাই, ওটা নাই, এটা হবে না কেন, ওটা হবে না কেন। নানা কথা লেখা হলো। কারা লিখেছিল, কাদের খুশি করতে লেগেছিল"। ‘আমি জানি, যারা সরাসরি হত্যা করেছে, নিজেরা স্বীকার করেছে। বিবিসির ইন্টারভিউতে রশিদ, ফারুক বলেছে, যে তারা হত্যা করেছে। তার কারণ একটা চেষ্টা ছিল- শেখ মুজিবকে জনগণের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করা এবং অনেক অপপ্রচার চালিয়ে তাকে জনগণের কাছ থেকে দূরে সরাতে পারেনি। আর সরাতে পারেনি বলেই তারা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। এটা হলো বাস্তবতা।’

উপমন্ত্রী পলাতক খুনিদের তথ্য জানিয়ে তিনি বলেন, ‘রাশেদ কানাডায়, নুর এখন যুক্তরাষ্ট্রে, মোসলে উদ্দিনের খোঁজ মাঝেমাঝে পাওয়া যায়, আবার মাঝে মাঝে পাওয়া যায় না। হত্যার বিচার করার দরকার ছিল. সেটা হয়েছে এবং কারা জড়িত ছিল সেটাও বের হবে। সেই দিন বেশি দূরে না।’ ‘জাতির পিতার একমাত্র স্বপ্ন ছিল, বাংলাদেশের মানুষ অন্ন পাবে, বস্ত্র পাবে, উন্নত জীবনের অধিকার পাবে। ঘরে ঘরে আলো পাবে। এগুলো ছিল জাতির পিতার  জীবনের লালিত স্বপ্ন। সেটা করার কাজ দিন রাত পরিশ্রম করে এগিয়ে  নিয়ে যাচ্ছেন জাতির জনকের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

সখিপুর থানা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও ভেদরগঞ্জ  উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হুমায়ুন কবির মোল্লার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায়  বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি  হাবিবুর রহমান সিকদার,কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ উপকমিটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মোঃ জহির সিকদার,জেলা শ্রমিক লীগের আহবায়ক এ্যাড,জহিরুল ইসলাম, সখিপুর থানা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মানিক সরকারের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন  সখিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান  কামরুজ্জামান সরদার,চর সেন্সাস ইউনিয়নপরিষদের চেয়ারম্যান জিতু মিয়া বেপারী,চরকুমারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক মোল্য,দক্ষিন তারা বুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ শাহজালাল মালসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন ও থানা  আওয়ামীলীগ, যুবলীগ,ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।