• বুধবার   ২৬ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১৩ ১৪২৮

  • || ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

শরীয়তপুর বার্তা

গোসাইরহাটে স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করতে গিয়ে কারাগারে বর

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ২১ ডিসেম্বর ২০২১  

শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করতে গিয়ে কারাগারে গেলেন বর। সোমবার বিকেলে উপজেলার নাগেরপাড়া ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামে বিয়ে বাড়িতে হাজির হয়ে বরকে কারাগারে পাঠান উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুজন দাস গুপ্ত।

বরের নাম দুলাল হোসেন। ৩২ বছর বয়সী দুলাল মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার চর দাতবালি গ্রামের আব্দুস সাত্তার আকনের ছেলে। ১৬ বছর বয়সী কনের বাড়ি গোসাইরহাট উপজেলার নাগেরপাড়া ইউনিয়নের কাচনা গ্রামে।

জানা গেছে, দুলালের সঙ্গে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ের আয়োজন করে পরিবার। এমন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়। সেইসঙ্গে বরকে সাতদিনের কারাদণ্ড, কনের বাবাকে ১০ হাজার টাকা ও ছেলের পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জেএসসি পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন কার্ড অনুযায়ী ওই কনের বয়স ১৮ এর নিচে হওয়া এ রায় দেয়া হয়। এছাড়া ১৮ বছরের আগে মেয়েকে বিয়ে দিবে না মর্মে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে মুচলেকা নেয়া হয়।

গোসাইরহাট উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুজন দাস গুপ্ত বলেন, নাগেরপাড়া ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামে ১৮ বছরের কম বয়সী এক মেয়েকে বাল্যবিয়ে দেওয়া হচ্ছে- এমন সংবাদে ঘটনাস্থলে গিয়ে বরকে আটক করি। পরে তাকে সাতদিনের কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়। বাল্যবিয়ের আয়োজন করায় বরের বাবাকে ৫০ হাজার টাকা ও কনের বাবাকে ১০ টাকা জরিমানা করা হয়।