• রোববার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৯

  • || ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর চট্টগ্রাম সফরে ৩০ প্রকল্প উদ্বোধন প্রতিবন্ধীদের ছাড়া রাষ্ট্রের সামগ্রিক উন্নয়ন সম্ভব নয়: শেখ হাসিনা গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে কত প্রাণ ঝরেছে হিসাব নেই পার্বত্য চট্টগ্রামসহ দেশের সর্বত্র শান্তি বজায় রাখতে সরকার বদ্ধপরিকর : প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধু ট্রাস্টের সভা বাংলাদেশ সবসময় ভারতের কাছ থেকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পায় কর ব্যবস্থাপনা তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী আইসিওয়াইএফ থেকে পাওয়া সম্মাননা প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর শিক্ষা ব্যবস্থা যাতে পিছিয়ে না যায় সে ব্যবস্থা নিচ্ছি

স্বপ্ন পূরণ করতে হেলিকপ্টার করে মাকে নিয়ে গ্রামে, মানুষের ভিড়

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২২  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

মাকে আনা হয়েছে হেলিকপ্টার করে। এমন খবরে শরীয়তপুর গোসাইরহাট উপজেলার ছোট কাচনা গ্রামে প্রথম হেলিকপ্টার ও মা-ছেলেকে দেখতে ভিড় করে গ্রামের মানুষজন। 

আজ রোববার (২০ ফেব্রুয়ারি) বেলা দুপুর ১২ টার দিকে উপজেলার নাগেরপাড়া ইউনিয়নের ছোট কাচনা গ্রামের খান বাড়ির মাঠ এমন ঘটনা ঘটে। 

স্থানীয় ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ছোট কাচনা গ্রামের মৃত মাষ্টার মতিউর রহমান বাঘার ছেলে নিয়াজ মোর্শেদ রাজিব (৩৬)। একযুগ ধরে ইতালির রোমে থাকেন। তাঁর মা নারগিস বেগমের (৬৫) স্বপ্ন পূরণ করতে ইতালি থেকে গতকাল শনিবার সকাল ৮টার দিকে বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক শাহজালাল বিমানবন্দরে এসে নামেন তিনি। পরে আজ রোববার দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা পুরাতন বিমানবন্দর থেকে হেলিকপ্টারে মাকে নিয়ে নিয়ে ছোট কাচনা গ্রামের খান বাড়ির মাঠ নামেন রাজিব। গ্রামের মানুষ তাদের মা-ছেলেকে ফুল দিয়ে বরণ করেন।

হেলিকপ্টার ও মাকে আনা হবে, এমন খবর আগেই প্রচার হয় গ্রামে। হেলিকপ্টার ও মা নারগিসকে দেখতে সহস্রাধিক মানুষ জড়ো হয় ছোট কাচনা এলাকায়। হেলিকপ্টার থেকে নেমে আসার পর মাকে নেওয়া হয় বাড়িতে। এমন দৃশ্য দেখতে সহস্রাধিক লোক ওই রাস্তায় জড়ো হয়। পরে গ্রামবাসীর মধ্যে মিষ্টি বিতরণ করা হয়।

শামসুদ্দিন সিকদার, তুশমিতা আক্তার, হিমেল, মোতালেব সরকার, ফুলন নেছাসহ গ্রামবাসী বলেন, আমাদের অজপাড়া গাঁয়ে এই প্রথম হেলিকপ্টার এসে নামলো। আমাদের গ্রামের রাজিব তাঁর মা'র স্বপ্ন পূরণ করতে হেলিকপ্টারে করে গ্রামে এসেছেন। হেলিকপ্টার ও রাজিবের মাকে দেখতে এসেছি।

নিয়াজ মোর্শেদ রাজিব বলেন, আমার মায়ের স্বপ্ন ছিল হেলিকপ্টার গ্রামের বাড়িতে আসবে। মায়ের প্রতি ভালোবাসা থেকে চেষ্টা করেছি। মায়ের স্বপ্ন পূরন করতে পেরে ভালো লাগছে, আনন্দ লাগছে। অনেকদিন পর গ্রামের লোকদের দেখে খুবই ভালো লাগছে। হেলিকপ্টারে আমি, মা, বোন, খালাতো ভাই ও খালাতো বোন এসেছি।

রাজিবের মা নারগিস বেগম বলেন, আমার আশা ও স্বপ্ন পূরন করেছে ছেলে রাজিব। আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করছি। ছেলের জন্য দোয়া করি, আপনারা দোয়া করবেন। 

নাগেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক বলেন, হেলিকপ্টারে করে রাজিব তাঁর মাকে গ্রামে এনেছেন।  হেলিকপ্টারের এমন খবর পেয়ে গ্রামের সহস্রাধিক মানুষ জড়ো হয়েছিল। এটা মায়ের প্রতি ছেলের অন্যরকম ভালোবাসা।