• মঙ্গলবার   ২৯ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী আইসিওয়াইএফ থেকে পাওয়া সম্মাননা প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর শিক্ষা ব্যবস্থা যাতে পিছিয়ে না যায় সে ব্যবস্থা নিচ্ছি প্লিজ যুদ্ধ থামান, সংঘাত থামাতে সংলাপ করুন: শেখ হাসিনা হানিফের সংগ্রামী জীবন নতুন প্রজন্মের রাজনৈতিক কর্মীদের দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করবে মোহাম্মদ হানিফ ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন পরীক্ষিত নেতা বাংলাদেশ যেন দুর্ভিক্ষের কবলে না পড়ে: প্রধানমন্ত্রী সংঘাত-দুর্যোগে নারীদের দুর্দশা বহুগুণ বাড়ে: প্রধানমন্ত্রী ১০ ডিসেম্বর বিএনপির মহাসমাবেশ, পরিবহন ধর্মঘট না ডাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর সচিবদের যেসব নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

গোসাইরহাটে বারি সরিষা-১৭ এর মাঠ দিবস

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১৩ জুন ২০২২  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : 
শরীয়তপুর জেলার গোসাইরহাট উপজেলায় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আয়োজিত কৃষক পর্যায়ে তেল জাতীয় ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্পের আওতায় বারি সরিষা-১৭ এর বীজ উৎপাদন ব্লক প্রদর্শণীর মাঠ দিবস ও রিভিউ ডিসকাশনের আলোচনা সভা গোসাইরহাট ইউনিয়নের বটনা ব্লকে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৩ জুন সোমবার সকালে মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোহাম্মদ সাহাবদ্দিনের  সভাপতিত্বে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গোসাইরহাট উপজেলার ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজন দাশ গুপ্ত। বিশেষ অতিথি ছিলেন গোসাইরহাট উপজেলা সিনিয়র উপজেলা মৎস্য অফিসার হাসিবুল হক,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান  শেখ আবুল খায়ের, কোদালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এস এম মিজানুর রহমান।

উপজেলার ইদিলপুর ইউনিয়নের বটনা গ্রামের কৃষক আবুল কালাম  বলেন, এ বছর তিনি বারি সরিষা-১৭ আবাদ করেছিলেন। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ফলন হয়েছে আশানুরুপ। প্রতি বিঘায় পাঁচ মণ ফলন হয়েছে এবং খরচ হয়েছে প্রায় চার হাজার টাকা। বাজারে প্রতি মণ সরিষা বিক্রি হচ্ছে তিন হাজার ৫০০ টাকার উপরে। সে হিসাবে তার প্রতি বিঘার সরিষা করে খরচ বাদে প্রায় ১৩৫০০/-টাকা লাভ হয়েছে বলে সভায় উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানের স্বাগত বক্তব্যে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোহাম্মদ  সাহাবদ্দিন  বলেন, আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ বছর ভালো ফলন পেয়েছেন কৃষকরা। চলতি মৌসুমে উপজেলায় ৩ শত ৫০ হেক্টর জমিতে সরিষার আবাদ হয়েছে। ফসল সংগ্রহ প্রায় শেষ পর্যায়ে। সরিষার বাজার ভালো থাকায় কৃষকেরা এ বছর ভালো দাম পাচ্ছেন এবং এ জাতের সরিষার ফলন ভালো হওয়ায় কৃষকেরা আগামী বছরের জন্য নিজেদের বীজ নিজে সংরক্ষণ করছেন।

প্রধান অতিথি গোসাইরহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারঃ) সুজন দাশ গুপ্ত বলেন, গোসাইরহাট উপজেলায় চলতি মৌসুমে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় সরিষার ফলন ভাল হয়েছে। ফলন আশাব্যঞ্জক হওয়ায় কৃষকের জন্য এ জাতের চাষ খুবই লাভজনক বলে, এর আবাদ বাড়ানোর জন্য তিনি উপস্থিত কৃষক-কিষাণীদের অনুরোধ জানান।

তিনি বলেন, কৃষি বান্দব মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার কন্য মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশে কৃষি ও কৃষকের উন্নয়ন কৃষি মন্ত্রণালয় বিনামূল্যে সার বীজ বিতরণ ও সরকারি প্রনোদনাসহ ভর্তুকী প্রদানের ফলে কৃষি এখন শক্ত ভিত্তির উপর দাড়িযে আছে।মাঠ দিবস ও ডিসকাশন সভায় প্রায় শতাধিক কৃষক/কৃষাণী উপস্থিত ছিলেন।