• শনিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১২ ১৪২৯

  • || ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
যারা উন্নয়ন দেখে না, তারা চাইলে চোখের ডাক্তার দেখাতে পারে- প্রধানমন্ত্রী অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সক্ষম হয়েছি: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আইওআরএ মন্ত্রীদের সাক্ষাৎ যোগাযোগ সম্প্রসারণে বাংলাদেশের সহযোগিতা চায় আমিরাত আ.লীগ স্বাস্থ্য খাতকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়: প্রধানমন্ত্রী এমপিদের ভবন প্রাঙ্গণে মীনা বাজার স্থাপন আনন্দের: স্পিকার ব্যাংকে টাকা না থাকার গুজবে চোরেরা সুযোগ নেবে: প্রধানমন্ত্রী ‘যা চাইবেন তার চেয়ে বেশি দেবো, ওয়াদা দেন নৌকায় ভোট দেবেন’ মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন সচিব সভায় ১০ নির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

ভেদরগঞ্জে শহীদ শেখ কামাল এর জন্মদিন পালিত

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৬ আগস্ট ২০২২  

শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ বিভিন্ন কর্মসূচির মাঝদিয়ে ভেদরগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র শেখ কামাল এর ৭৩ তম জন্মদিন পালিত হয়েছে। সকাল ৯ টা ১৫ মিনিটে শহীদ শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে উপজেলা পরিষদের সামনের বঙ্গবন্ধু মূরাল চত্বরে  স্থাপিত  শহীদ শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এরপরে  বীরমুক্তিযোদ্ধা  শহীদ শেখ কামালের জীবন ও কর্ম নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়  আলোচনা সভা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল্লাহ আল মামুন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামিলীগ  সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মাস্টার তোফাজ্জল হোসেন মোড়ল, যুদ্ধকালিন কমান্ডার আবদুল মান্নান রাড়ী, উপজেলা প্রাণী সম্পদ অফিসার ডাঃ মোহাম্মদ ফারুক হোসেন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার একেএম ফজলুল হক,ভেদরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ বাহালুল খান বাহার ,উপজেলা  আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক হাজি আবদুল মান্নান হাওলাদার, উপজেলা মৎস্য অফিসার মোঃ নজরুল ইসলাম।

সভাপতির বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ১৯৪৯ সালের এই দিনে তিনি তদানীন্তন গোপালগঞ্জ মহকুমার টুঙ্গীপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন এবং ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালো রাতে মাত্র ২৬ বছর বয়সে শাহাদাত বরণ করেন।

পাকিস্তানি শোষকদের নির্মম শোষণের বিরুদ্ধে কথা বলবার কারণে, প্রতিবাদ করার কারণে তার পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে জীবনের দীর্ঘ সময় কাটাতে হয় কারাগারে। একদিন বঙ্গবন্ধু জেল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি এসেছেন, বহুদিন পর বাড়িতে আনন্দের জোয়ার বয়ে যাচ্ছে। কিন্তু ছোট্ট ছেলেটি এই আনন্দের কারণ বুঝতে পারছে না। কেননা বাড়িতে যে অপরিচিত লোকটি এসেছে, তাকে সে চিনতে পারছে না। আরও অবাক করার মতো ব্যাপার হলো, এই লোকটিকে তার বড় আপা শেখ হাসিনা ‘আব্বা’ বলে ডাকছে। বেশ কাঁচুমাচু ভঙ্গিতে ছেলেটি বড় আপার কানে কানে ফিসফিস করে বলল, ‘হাসু আপা, হাসু আপা, তোমার আব্বাকে আমি একটু আব্বা ডাকি?’ এই ছিলেন শেখ কামাল।

আজ ৫ আগস্ট। ১৯৪৯ সালের এই দিনে শেখ কামালের জন্ম হয়েছিল গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে। শেখ কামাল কে ছিলেন বা কী ছিলেন তিনি? এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজে বের করবার চেয়ে ‘কী ছিলেন না তিনি’ এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজে বের করা বোধহয় সহজ হবে। খুব ছোটবেলা থেকেই সব ধরনের খেলাধুলায় প্রচ- আগ্রহ ছিল তার, ঢাকার শাহীন স্কুলে থাকাকালীন ছিলেন স্কুলের প্রতিটি খেলার অপরিহার্য অংশ। এরমধ্যে ক্রিকেটটা তাকে টানত সবচেয়ে বেশি। দীর্ঘদেহী পেসার ছিলেন, নিখুঁত লাইন- লেন্থ আর প্রচ- গতি দিয়ে খুব সহজেই টালমাটাল করে দিতেন প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানকে। অবিভক্ত পাকিস্তানের অন্যতম উদীয়মান পেসার ছিলেন, কিন্তু বাঙালি হওয়ার কারণে এবং মুজিবের পুত্র হওয়ার অপরাধে তার এই প্রতিভা ছিল অবহেলিত। তিনি উপেক্ষিত হয়েছিলেন নিদারুণভাবে। শুধু খেলাধুলাই নয়, পড়াশোনা, সংগীতচর্চা, অভিনয়, বিতর্ক, উপস্থিত বক্তৃতা থেকে শুরু করে বাঙালি সংস্কৃতিকে বিশ্বদরবারে তুলে ধরবার চেষ্টা কোথায় নেই শেখ কামাল?
ছায়ানটের সেতারবাদন বিভাগের মেধাবী ছাত্র শেখ কামাল সহযোদ্ধাদের নিয়ে প্রতিষ্ঠা করলেন ‘ঢাকা থিয়েটার’। সুঅভিনেতা হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যাঙ্গনে সুপরিচিত ছিলেন তিনি। এদিকে খেলাধুলাও চলছে পুরোদমে। সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের বাসিন্দা শেখ কামাল বাস্কেট বল টিমের ক্যাপ্টেন ছিলেন। বাস্কেটবলে তার অসামান্য দক্ষতা বিশ্ববিদ্যালয়ে তার হলের শ্রেষ্ঠত্ব বজায় রেখেছিল তার অবস্থানকালীন পুরোটা সময়।