• শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২১ ১৪২৯

  • || ১৩ রজব ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় আরেকটি মাইলফলক স্থাপিত হলো: প্রধানমন্ত্রী জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী ২০২২ সালে বিদেশে গেছেন ১১ লাখ ১৩ হাজার ৩৭৪ কর্মী: প্রধানমন্ত্রী পাতাল রেল নির্মাণকাজের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী সাগরের পানি থেকে হাইড্রোজেন বিদ্যুৎ উৎপাদনে আলোচনা চলছে

জুনে মেসিদের ঢাকায় আসা নিয়ে কোনো আলোচনাই হয়নি!

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১৮ জানুয়ারি ২০২৩  

‘আগামী জুনেই ঢাকায় আসছে বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনা’- একদিন আগেই এমন খবরে হইচই পড়ে গিয়েছিল। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন নিজেই দেশের একটি গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন এমন খবর।

কিন্তু একদিন পার না হতেই বিষয়টির সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।  

আজ আর্জেন্টিনার শীর্ষ সংবাদমাধ্যম 'টিওয়াইসি স্পোর্টস' এর সাংবাদিক গাস্তোন এদুল দাবি করেছেন, মেসিবাহিনীর বাংলাদেশ সফর নিয়ে নাকি এখন পর্যন্ত কোনো আলোচনাই হয়নি। টুইটারে তিনি লিখেছেন, 'আগামী জুনে খেলা নিয়ে আর্জেন্টিনা ও বাংলাদেশের মধ্যে কোনো আলোচনা হয়নি। আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের কোচ লিওনেল স্কালোনির চুক্তি নবায়ন সংক্রান্ত বিষয়টির সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এএফএ) অন্য কিছু ভাবছে না। ' 

গাস্তোন এদুলের ওই টুইট প্রকাশ্যে আসার পর মন্তব্য জানতে যোগাযোগ করা হলেও ফোন রিসিভ করেননি বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ। ফলে বাফুফের অবস্থান এখনও পরিষ্কার নয়। তাছাড়া আর্জেন্টিনা দলকে ঢাকায় আনা সংক্রান্ত ব্যাপার নিয়ে আজ বাফুফের নির্ধারিত সংবাদ সম্মেলনও বাতিল করা হয়েছে।

আর্জেন্টাইন সাংবাদিকের সেই টুইট

 

এর আগে গতকাল বাফুফে সভাপতি দেশের এক গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, জুনের ফিফা উইন্ডোতে ঢাকায় আসতে রাজি হয়েছে আর্জেন্টিনা। এখন দুই পক্ষের মধ্যে কিছু টার্মস অ্যান্ড কন্ডিশন নিয়ে আলোচনা চলছে। ঢাকায় আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ কারা হবে তা নিয়েও আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে বাফুফে। কয়েকটি দেশের নাম প্রস্তাব করবে আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এএফএ)। সেখান থেকে বাছাই করে যেকোনো একটি দেশকে প্রতিপক্ষ হওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হবে।