• বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৬ ১৪৩০

  • || ১৮ শা'বান ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
পণ্যমূল্য সহনীয় রাখতে সরকারের পাশাপাশি জনগণেরও নজরদারি চাই রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে থাকবে পুলিশকে জনগণের বন্ধু হয়ে নিঃস্বার্থ সেবা দেয়ার নির্দেশ রাষ্ট্রপতি বিশ্বের সম্ভাব্য সকল স্থানে রপ্তানি বাজার ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা জরুরি গভীর সমুদ্র থেকে গ্যাস উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে পুলিশ সপ্তাহ শুরু, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী আইনশৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে পুলিশ নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে

এবার আপা বলায় চটলেন চিকিৎসক

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ২৯ মার্চ ২০২৩  

এবার মানিকগঞ্জে ‘আপা’ বলায় সাংবাদিকদের ওপর চটেছেন এক চিকিৎসক। বললেন ‘আপা’ নয় তাকে ‘ম্যাডাম’ বলতে হবে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চিকিৎসকের রেগে যাওয়ার একটি ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে।

২৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, হাসপাতালে ওই চিকিৎসকের ইন্টারভিউ করছিলেন স্থানীয় সাংবাদিকরা। এক সাংবাদিক ওই চিকিৎসককে প্রশ্ন করেন, আপা আপনার নাম কী?

এ সময় নিরুপমা পাল জানিয়ে ওই চিকিৎসক রেগে গিয়ে বলেন, ‘আপনি আমাকে আপা বলছেন কেন।’ এ সময় পাশ থেকে আরেকজন জানতে চান তাহলে আপনাকে কী বলতে হবে ‘ম্যাডাম’। তখন চিকিৎসক নিরুপমা পাল বলেন ‘হ্যা অবশ্যই’।

তখন সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন কেন আপনাকে ‘ম্যাডাম’ বলতে হবে। এ সময় ওই নারী চিকিৎসক পাশের একজনকে বলেন, আচ্ছা উনি কেন আমাকে হেরাজ করতেছে বলেন। তখন অন্য একজনকে বলতে শোনা যায় আপনিইতো প্রথমে শুরু করলেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নিরুপমা পাল মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেডিকেল অফিসার হিসেবে কর্মরত। সম্প্রতি সিঙ্গাইরে একটি মারামারির ঘটনায় আহতদের ইনজুরি সার্টিফিকেটে ভুল তথ্য দেওয়ার অভিযোগ ওঠে ওই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) বিকেলে স্থানীয় কয়েকজন সাংবাদকর্মী তার বক্তব্য জানতে হাসপাতালে গেলে এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

পরে বিপ্লব শান্ত নামে এক সংবাদকর্মী ফেসবুকে ভিডিওটি আপলোড করেন। যা মুহূর্তেই নেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে।

এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে চিকিৎসক নিরুপমা পালের মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে ফোনটি তার স্বামী ডা. পার্থ রিসিভ করেন।

তিনি জানান, ভাইরাল ভিডিও নিয়ে তার স্ত্রী মানসিকভাবে কিছুটা বিপর্যস্ত। এ বিষয়ে তিনি কোনো কথা বলতে চান না।

মানিকগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো. মোয়াজ্জেম আলী জানান, চিকিৎসকের রেগে যাওয়ার ভিডিও ভাইরাল হওয়ার বিষয়টি তিনি জেনেছেন। তবে এটি স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে একটা ভুল বোঝাবুঝির ঘটনা ছিল। পরে বিষয়টি মীমাংসা হয়েছে। একইসঙ্গে ভবিষ্যতে যাতে এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি না হয় সে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।