• বৃহস্পতিবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ||

  • আশ্বিন ১৩ ১৪৩০

  • || ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা

ঘাতকরা বাংলাদেশের ইতিহাস মুছে ফেলতে চেয়েছিল

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১৯ আগস্ট ২০২৩  

শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ আওয়ামীল নির্বাহী কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেন অপু এমপি  বলেছেন, ইতিহাসের বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে ঘাতকরা বাংলাদেশের ইতিহাস মুছে ফেলতে চেয়েছিল।

শনিবার(১৯ আগস্ট) শরীয়তপুর পৌরসভা আওয়ামীলীগ আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

শরীয়তপুর পৌরসভা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম এম জাহাঙ্গীর মৃধার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন খান এর সঞ্চালনায় জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক এ্যাডভোকেট মির্জা হজরত আলী,সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান উজ্জল, জেলা আওয়ামীলীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক সরদার, সদর উপজেলা আওয়ামীলী সভাপতি এ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা,কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সদস্য মোজাফ্ফর হোসেন জমাদ্দার। উপস্থিত ছিলেন ,প্যানেল মেয়র বাচ্চু বেপারী, সদর উপজেলা যুবলীগ সভাপতি বিল্লাল হোসেন দিপু, সাধারণ সম্পাদক হোসেন সরদার, শরীয়তপুর পৌরসভা যুবলীগ সভাপতি কাউন্সিল জাহাঙ্গীর হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক মহসিন মাদবর,

 প্রধান অতিথি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বিদেশে থাকায় ভাগ্যক্রমে বেঁচে যান। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টে ঘাতকরা নিষ্পাপ শিশু শেখ রাসেলকেও নিস্তার দেয়নি। এমনকি বিদেশেও বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা ভয়ানক বৈরী আচরণ সহ্য করেছেন।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নৃশংস হত্যাকা-ের সাত বছর পর আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়ে ভয়-ভীতি উপেক্ষা করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশে ফিরে আসেন। প্রধানমন্ত্রী ফিরে এসেছিলেন বলেন বাংলাদেশের ইতিহাস ঘুরে দাঁড়িয়েছে। ‘আমরা বঙ্গবন্ধুকে পাইনি পেয়েছি তারই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে’। আমরা তাকে আমাদের জীবনের বিনিময়ে হলেও বাঁিচয়ে রাখবো। আমরা তাকে আমাদের মাঝ থেকে হারিয়ে যেতে দিবনা।