• বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ১১ ১৪৩১

  • || ১৪ শাওয়াল ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা

স্বাধীনতার ইতিহাসে কলঙ্কিত এক নাম সোয়াত

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ২৫ মার্চ ২০২৩  

বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাসে কলঙ্কিত এক অধ্যায়ের নাম সোয়াত। ১৯৭১ সালের ১৭ মার্চ অস্ত্র ও গোলাবারুদ নিয়ে পশ্চিম পাকিস্তান থেকে সোয়াত জাহাজ নোঙর করেছিল চট্টগ্রাম বন্দরে। খবর ছড়িয়ে পড়তেই অস্ত্র খালাস ঠেকাতে জোট বাঁধে মুক্তিকামী জনতা। ২৪ মার্চ বিকেলে নিউমুরিং কলোনি মাঠে হাজার হাজার শ্রমিক, জনতা, রাজনৈতিক নেতাকর্মী রড হাতে মিছিল করেন। গুলিতে সেদিন মারা যায় নিরীহ মানুষ। আহত হয়েছিল অনেকে।

তথ্য বলছে, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ শুরুর আগে পশ্চিম পাকিস্তান থেকে অস্ত্র নিয়ে আসা সোয়াত জাহাজ থেকে অস্ত্র খালাস করতে চেয়েছিলেন তৎকালীন মেজর জিয়াউর রহমান। কিন্তু সাধারণ মানুষের তীব্র প্রতিরোধের মুখে ব্যর্থ হয় সেই চেষ্টা। ২৫ মার্চ রাতে তৎকালীন মেজর রফিকের বিচক্ষণতায় চট্টগ্রাম ছিল বাঙালিদের দখলে। সেই সঙ্গে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে ২৬ মার্চ বঙ্গবন্ধুর পক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রথম স্বাধীনতার ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগ নেতা এম এ হান্নান।

এ বিষয়ে মুক্তিযোদ্ধা অরুণ দাশ সাথী জানান, ৭ মার্চের ভাষণে জনগণকে নির্দেশনা ও যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হওয়ার জন্য বলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ২৫ মার্চ রাতে বাঙালিদের ওপর হামলা হবে বুঝতে পেরে উল্টো আক্রমণ করেন ইপিআরের অবাঙালি সৈন্য ও অফিসারদের বন্দি করেছিলেন ইস্ট পাকিস্তান রাইফেলসের অ্যাডজুটেন্ট হিসেবে কর্মরত থাকা তৎকালীন মেজর রফিক।

চট্টগ্রাম বাংলাদেশ মুক্তি সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষণা কেন্দ্র ট্রাস্টের চেয়ারম্যান ডা. মাহফুজুর রহমান বলেন, সেই অস্ত্র খালাসের জন্য ব্রিগেডিয়ার মজুমদার ও জিয়াউর রহমানের ওপর অ্যাসাইনমেন্ট ছিল। জিয়া বারবার এসেছে, চেষ্টা করেছে কিন্তু প্রতিবাদের মুখে অস্ত্র খালাস করতে পারেনি।

ইতিহাসের তথ্য বলছে, ২৫ মার্চ ক্যাপ্টেন রফিক বিদ্রোহ ঘোষণা করে পাকবাহিনীর ওপর আঘাত করার প্রস্তুতি নিলেও মেজর জিয়া জাহাজ থেকে অস্ত্র খালাসের উদ্দেশ্যে কেন বন্দরে যেতে চান, তা আজও রহস্যাবৃত।

এদিকে ১০ কিলোওয়াট ক্ষমতার স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ বঙ্গবন্ধুর পক্ষে প্রথম স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র পাঠ করেন আওয়ামী লীগ নেতা এম এ হান্নান।

দেশে আনুষ্ঠানিক মুক্তিযুদ্ধ শুরুর আগেই ২৪ মার্চ এই বন্দর এবং সোয়াত জাহাজ ঘিরে বাঙালির প্রথম প্রতিরোধ যুদ্ধ শুরু হয়। ১৯৭১ সালের ১৮ এপ্রিল সোয়াত জাহাজ চট্টগ্রাম বন্দর ছেড়ে যায়। ততদিনে স্বাধীন সরকার গঠন করে বাংলাদেশ।