• শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২১ ১৪২৯

  • || ১২ রজব ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় আরেকটি মাইলফলক স্থাপিত হলো: প্রধানমন্ত্রী জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী ২০২২ সালে বিদেশে গেছেন ১১ লাখ ১৩ হাজার ৩৭৪ কর্মী: প্রধানমন্ত্রী পাতাল রেল নির্মাণকাজের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী সাগরের পানি থেকে হাইড্রোজেন বিদ্যুৎ উৎপাদনে আলোচনা চলছে

পাঁচ হাজার ইয়াবা নিয়ে স্বামীসহ আটক নারী কৃষি কর্মকর্তা

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ২৬ নভেম্বর ২০২২  

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে পাচারকালে পাঁচ হাজার পিচ ইয়াবাসহ এক কৃষি কর্মকর্তা ও তার স্বামী এবং তাদের প্রাইভেটকারের চালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের দক্ষিণপাড়া গ্রাম থেকে তাদের আটক করা হয়। রাতেই তাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা করেছে পুলিশ। 

আটকৃতরা হলেন আড়াইহাজার উপজেলার উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা আকলিমা আক্তার, তার স্বামী মোতাহার হোসেন সেলিম এবং প্রাইভেটকারের চালক আজিজুল হক। 

পুলিশ জানায়, আড়াইহাজার উপজেলা কৃষি বিভাগের উপ-সহকারী কৃষি অফিসার আকলিমা আক্তার ও তার স্বামী ইয়াবার ব্যবসায় জড়িত এমন তথ্যের ভিত্তিতে তাদের ওপর গোয়েন্দা নজরদারি শুরু করে পুলিশ। শুক্রবার রাজধানী থেকে তিনি ও তার স্বামী পাঁচ হাজার পিস ইয়াবা ক্রয় করে ভাড়া করা একটি প্রাইভেট কারে আড়াইহাজারে নিজ বাড়ির উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। 

এই তথ্যের ভিত্তিতে তাদের বাড়ির অদূরে পুলিশের একটি দল অবস্থান নেয়। এসময় প্রাইভেট কারের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে পুলিশ গাড়িটি থামায়। ভেতরে তল্লাশি করে পাঁচ হাজার পিস ইয়াবা পাওয়া গেলে আটক করা হয় কৃষি কর্মকর্তা আকলিমা আক্তার, তার স্বামী মোতাহার হোসেন সেলিম ও গাড়ি চালক আজিজুল হককে। 

পরে জব্দ করা ইয়াবা ও প্রাইভেট কারসহ আটকদের আড়াইহাজার থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাদের জিজ্ঞেসাবাদ করা হয়। 

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবির হোসেন জানান, রাতে তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। শনিবার তাদের আদালতে পাঠানো হবে। 

গ্রেফতারকৃতরা দক্ষিণপাড়া গ্রামে নিজেদের বাড়িতে বসবাস করেন। তারা সেখানে থেকে দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবার কারবার পরিচালনা করে আসছিলেন বলে জানান পুলিশ সুপার।