• রোববার ১৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১ ১৪৩১

  • || ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ প্রধানমন্ত্রীকে বদলে যাওয়া জীবনের গল্প শোনালেন সুবিধাভাগীরা

ছোটদের মধ্যেও যে কারণে বাড়ছে লিভারের অসুখ

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০২৪  

কমবয়সীদের মধ্য়েও এখন বাড়ছে ফ্যাটি লিভারের ঝুঁকি। এমনকি গুরুতর লিভারের রোগেও ভুগতে পারে তারা। এর কারণ হিসেবে বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, অতিরিক্ত ফোনের ব্যবহার। অনেক শিশুরাই এখন ইলেক্ট্রনিক ডিভাইসে আসক্ত।

এর ফলে মনের উপর প্রভাব তো পড়ছেই, ক্ষতি হচ্ছে শরীরেরও। নানা শারীরিক রোগ বাসা বাঁধছে তাদের শরীরে। দেখা গেছে, বর্তমান প্রজন্মের শিশুদের মধ্যে ওবেসিটি দিন দিন বেড়েই চলেছে। ওবেসিটি বা অতিরিক্ত ওজন থেকেই নানা রোগের ঝুঁকি বাড়ছে।

কুয়োপিয়োর ইস্টার্ন ফিনল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের মুখ্য গবেষক অ্যান্ড্রিউ আগবাজের মতে, সেডেন্টারি লাইফস্টাইল অর্থাৎ সারাদিন একভাবে বসে থাকা, শরীরচর্চা না করা বা শারীরিক পরিশ্রম না করার কারণে লিভার ড্যামেজের ঝুঁকি বাড়ছে।

তার মতে, অভিভাবকদের এই ব্যাপারে সচেতন হতে হবে। শিশু, কিশোর ও তরুণদের মধ্যে লিভারের রোগ বাড়ছে মূলত আধুনিক জীবনযপানের ভুল থেকেই। এই জীবনযাপনে বদল না এলে লিভার শুধু, আরও অন্যান্য অঙ্গও ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।

দেখা গেছে, লিভার ছাড়াও হার্ট ও কিডনির বিপদ বাড়িয়ে দেয় সেডেন্টারি লাইফস্টাইল। যে কারণে বর্তমান সময়ে তরুণ তরতাজা যুবকদের মধ্যে হার্ট অ্যাটাক, হার্ট ফেলিওরের ঘটনাও বাড়ছে। শিশুদের ভবিষ্যত এখন থেকেই সুরক্ষিত করতে কিছু পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। যেমন-

>> মোবাইলের আসক্তি ছাড়াতে হবে। এর জন্য মোবাইলে গেমিং সীমিত করুন। প্রয়োজনে ফোনকে পড়াশোনার কাজে লাগান।

>> বাইরে নিয়মিত খেলতে যেতে উৎসাহ দিন।

>> শরীরচর্চার নানা ভালো দিক নিয়ে শিশুকে বোঝাতে হবে। এতে সে আরও উৎসাহ পাবে। শরীরচর্চার অভ্যাস করাতে পারলে নানা রোগের ঝুঁকি কমবে।