• বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৯ ১৪৩১

  • || ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর কয়েকটি টিপস

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩  

পছন্দের পায়েস হোক বা পোলাও, একমুঠো কাজুবাদাম পড়লে যেন স্বাদ আরো দ্বিগুণ হয়ে যায়! বিভিন্ন তরকারিতেও কাজুবাদামের পেস্ট ব্যবহার করা হয়ে থাকে। তবে কাজু কেবল খাবারের স্বাদ বাড়ায় না, বরং শরীরের খেয়াল রাখতেও এর জুড়ি মেলা ভার।
পুষ্টিবিদরা বলছেন, এতে আছে ফাইবার, প্রোটিন, ম্যাঙ্গানিজ, ফসফরাস, ম্যাগনেশিয়াম, জিঙ্ক, কপারের মতো উপকারী উপাদান। এছাড়াও, কাজুবাদাম ভিটামিন কে, ভিটামিন বি৬ এবং থায়ামিন সমৃদ্ধ, যা শরীরের নানা সমস্যা দূর করে অতি সহজেই। এই কারণেই পুষ্টিবিদরা প্রতিদিন কাজু খাওয়ার পরামর্শ দেন। তবে কাজুবাদামের পর্যাপ্ত পুষ্টি পেতে হলে দুধের সঙ্গ লাগবে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, দুধে কাজু ভিজিয়ে খেলে হাড় ও পেশীর বিকাশ ঘটে, কোষ্ঠকাঠিন্য থেকেও মুক্তি মেলে। এ ছাড়াও, দুধে কাজুবাদাম ভিজিয়ে খাওয়ার একাধিক উপকারিতা রয়েছে। চলুন জেনে নেয়া যাক, এক গ্লাস দুধে কাজুবাদাম ভিজিয়ে খেলে কী কী উপকার মিলতে পারে।

>> হাড় মজবুত করে দুধে ভেজানো কাজুবাদাম খেলে হাড় শক্তিশালী হয়। দুধে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম রয়েছে। আর, কাজুবাদামে রয়েছে ভিটামিন কে, ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন বি৬ এবং ম্যাঙ্গানিজের মতো পুষ্টি উপাদান। এই সব ভিটামিন এবং খনিজগুলি হাড়কে শক্তিশালী করে, জয়েন্টের ব্যথা থেকেও মুক্তি দেয়। তাই, হাড়ের ব্যথা কমাতে বয়স্ক ব্যক্তিরা অবশ্যই রোজ দুধে কাজুবাদাম ভিজিয়ে খান। দুধে সারা রাত কাজুবাদাম ভিজিয়ে রাখুন। পরদিন সেই দুধ খান।

>> কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি দেয় কাজুবাদাম। যারা কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় ভুগছেন, তারা দুধে কাজুবাদাম ভিজিয়ে খেতে পারেন। কাজুতে থাকে ফাইবার, যা কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় দারুণ কার্যকর। রাতে দুধে কাজু বাদাম ভিজিয়ে রেখে দিন। পরদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে খেয়ে নিন। এতে পেট পরিষ্কার হবে।

>> প্রতিদিন দুধে কাজুবাদাম ভিজিয়ে খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। কাজুবাদাম ও দুধ উভয়ই ভিটামিন এবং খনিজ সমৃদ্ধ। আর, একসঙ্গে এই দু'টি খাবার খাওয়া হলে অনাক্রম্যতা বা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়তে পারে।