• বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৬ ১৪৩০

  • || ১৮ শা'বান ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
পণ্যমূল্য সহনীয় রাখতে সরকারের পাশাপাশি জনগণেরও নজরদারি চাই রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে থাকবে পুলিশকে জনগণের বন্ধু হয়ে নিঃস্বার্থ সেবা দেয়ার নির্দেশ রাষ্ট্রপতি বিশ্বের সম্ভাব্য সকল স্থানে রপ্তানি বাজার ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা জরুরি গভীর সমুদ্র থেকে গ্যাস উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে পুলিশ সপ্তাহ শুরু, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী আইনশৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে পুলিশ নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে

ওষুধ নয়, এই পাঁচ খাবার পাতে রাখলেই দূর হবে ফ্যাটি লিভার

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩  

শরীরের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ লিভার। এই অঙ্গটি খাবার হজমে, এনার্জি ধরে রাখতে, শরীর থেকে বিষ বের করে দিতে সাহায্য করে। এহেন যকৃতে ফ্যাটের আস্তরণ পড়লে বলা হয় ফ্যাটি লিভার ডিজিজ।
ফ্যাটি লিভার অসুখটি এখন ঘরে ঘরে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, কার্বোহাইড্রেটের সঙ্গে এই রোগের বিশেষ যোগাযোগ রয়েছে। সমস্যা হচ্ছে, এই অসুখের তেমন একটা চিকিৎসা নেই। বরং ওষুধের পাশাপাশি ডায়েটে বদল আনতে হয়। আসুন জানা যাক কোন কোন খাবার ফ্যাটি লিভারে উপকারী-

>> রসুন তো আমাদের একান্ত আপন। রসুন গুণে বহু অসুখ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তাই তো প্রাচীন আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে রসুনকে এতটা গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। ওয়েব মেড জানাচ্ছে, রসুন ফ্যাটি লিভার রোগীদের জন্যও ভীষণই উপকারী। ২০১৬ সালের একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে ফ্যাটি লিভার নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে রসুন। এমনকি এই মশলা ওজন কমাতে পারে বলে নন অ্যালকোহোলিক ফ্যাটি লিভার ডিজিজে ভীষণ উপকার মেলে।

>> সব ফ্যাট খারাপ নয়। কিছু ফ্যাট শরীরের জন্য ভালো। এই যেমন ওমেগা থ্রি ফ্যাটের কথাই ধরুন। এই ফ্যাটি অ্যাসিড গোটা শরীরের উপকার করে। দেখা গেছে, খারাপ কোলেস্টেরল বা এলডিএল-কে কমাতে পারে ওমেগা থ্রি। পাশাপাশি কমায় ট্রাইগ্লিসারাইডস। তাই ওমেগা থ্রি যুক্ত খাবার খাওয়া চাই। এক্ষেত্রে খেতে পারেন স্যালমন, সার্ডিনের মতো বিদেশি মাছ। এছাড়া ফ্ল্যাক্সসিড, আমন্ড ও ওয়ালনাটে এই উপাদান মেলে।

>> কফি এক অদ্ভুত পানীয়। এই পানীয় মুখে নিলেই শরীর চাঙ্গা হয়। হঠাৎ করেই কাজে বসে মন। কিন্তু আজ আপনাকে আরো একটি সুখবর দেব কফির বিষয়ে। একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে কফি পান করার মাধ্যমে লিভারের ক্ষত সারে। এমনকি কফি রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে দেয়। এছাড়া শরীরের বিপাক ক্রিয়া ঠিকমতো চলতে থাকে এই পানীয়ের মাধ্যমে। ফলে ফ্যাটি লিভারে আক্রান্ত মানুষের দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠার সম্ভাবনা বাড়ে।।

>> আপনারা বাঁধাকপি, ফুলকপি তো খান, তবে ব্রকোলিতে এত আপত্তি কেন! এই সবজি খেতে মোটের উপর ভালোই। পাশাপাশি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ফ্ল্যাভানয়েডসে ভরপুুর। এছাড়াও রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। তাই নিয়মিত ব্রকোলি খান। ব্রকোলি খেলে ফ্যাটি লিভার আক্রান্তদের লাভ মেলে। এই খাবারে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা লিভারে থাকা ফ্যাট ঝরায় এবং নতুন করে মেদ জমতে বাধা দেয়। আর এই তত্ত্ব গবেষণাতেও ইতিমধ্যেই প্রমাণিত।

>> গ্রিন টি দারুণ এক পানীয়। এই পানীয় অনেক শারীরিক সমস্যার সমাধান করে দিতে পারে। এতে রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা বিপাকের হার ঠিক রাখে। এমনকি এই উপাদানই দেহ থেকে খারাপ পদার্থ বের করে দিতে পারে। এই পানীয়ে থাকা ক্যাটাচিনস নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা ফ্যাটি লিভারে উপকারী। তাই নিয়মিত এই পানীয় মুখে তুলুন।