• শনিবার ০২ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৮ ১৪৩০

  • || ২০ শা'বান ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
বেইলি রোডে অগ্নিকান্ড কবলিত ভবনে ফায়ার এক্সিট না থাকায় হতাশ নতুন নতুন অপরাধ দমনে পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ পণ্যমূল্য সহনীয় রাখতে সরকারের পাশাপাশি জনগণেরও নজরদারি চাই রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে থাকবে পুলিশকে জনগণের বন্ধু হয়ে নিঃস্বার্থ সেবা দেয়ার নির্দেশ রাষ্ট্রপতি বিশ্বের সম্ভাব্য সকল স্থানে রপ্তানি বাজার ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা জরুরি গভীর সমুদ্র থেকে গ্যাস উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে

শীতে শিশুর খাদ্য তালিকায় যেসব খাবার রাখা জরুরি

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ২৮ নভেম্বর ২০২৩  

দেশজুড়ে শীতের হিম শীতল বাতাস আর সঙ্গে ঘন কুয়াশায় জানান দিচ্ছে শীত প্রায় এসেই গেছে। আর এ শীতে বড়দের মতো কাবু হয়ে পড়ে শিশুরাও। এ সময়টাতে তাদের প্রতি বিশেষ যত্ন নিতে হয়। কারণ, ঠান্ডাজনিত নানা রোগবালাই লেগেই থাকে এই শীতকালে।
আর তাই শিশুকে শীতে সুস্থ রাখতে প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় রাখুন গুরুত্বপূর্ণ কিছু খাবার। যেসব খাবার তাদের দূরে রাখবে শীতকালীন নানা অসুখ-বিসুখ থেকে।

শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এমনিতেই কম। শীতে আরো কমে যায়। তাই সুস্থ থাকতে এই সময় শিশুদের ডায়েটে বিশেষ জোর দেওয়া জরুরি। শীতে সন্তানকে কোন খাবারগুলো খাওয়ানো জরুরি?

সবুজ শাকসবজি

শাকসবজির কথা প্রায় সব চিকিৎসকই বলেন। শীতকালীন সবুজ শাকসবজি শিশুর খাদ্যতালিকায় থাকলে শিশুর স্বাস্থ্য থাকবে আরো বেশি তরতাজা।

বাদাম

বাদামে রয়েছে ভিটামিন, মিনারেলস, অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট, ফাইবারের মতো উপকারী উপাদান। এই প্রতিটি উপাদান রোগের সঙ্গে লড়াই করতে সাহায্য করে। তাই শীতে শিশুকে বেশি করে বাদাম খাওয়ান।

এছাড়াও কাজু, আখরোট, কাঠবাদাম ইত্যাদি বাদামে রয়েছে বিশেষ কিছু পুষ্টিগুণ। যেগুলো শীতকালীন রোগবালাই থেকে শরীরকে রক্ষা করে।

দুধ

শিশু-শরীরের পুষ্টির জন্য শীতকালে নিয়মিত এক গ্লাস গরম দুধের কোনো বিকল্প নেই। দুধের মধ্যে থাকা পুষ্টিকর উপাদান সব বয়সের মানুষের জন্যই অত্যন্ত উপকারী। তবে শিশুদের শরীরে ক্যালশিয়ামের পরিমাণ কম থাকে। তাই ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ দুধ শীতে শিশুদের খাওয়ানো জরুরি।

ডিম

ডিমে থাকা ভিটামিন ডি, জিংক, সেলেনিয়াম, ভিটামিন ই শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে বিশেষ সহায়ক। তা ছাড়া ডিমে থাকা প্রোটিন শীতকালে শরীর চাঙ্গা রাখার ব্যাপারেও ভালো কাজ করে।