• শনিবার ০২ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৮ ১৪৩০

  • || ২০ শা'বান ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
বেইলি রোডে অগ্নিকান্ড কবলিত ভবনে ফায়ার এক্সিট না থাকায় হতাশ নতুন নতুন অপরাধ দমনে পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ পণ্যমূল্য সহনীয় রাখতে সরকারের পাশাপাশি জনগণেরও নজরদারি চাই রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে থাকবে পুলিশকে জনগণের বন্ধু হয়ে নিঃস্বার্থ সেবা দেয়ার নির্দেশ রাষ্ট্রপতি বিশ্বের সম্ভাব্য সকল স্থানে রপ্তানি বাজার ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা জরুরি গভীর সমুদ্র থেকে গ্যাস উত্তোলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে

ভেদরগঞ্জে পুষ্টি বাগানের উপকরণ বিতরণ করলেন জেলা প্রশাসক

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ নিজাম উদ্দীন আহাম্মেদ ভেদরগঞ্জে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এর উদ্যোগে পুষ্টি বাগান স্থাপনের জন্য চারা বীজসহ বিভিন্ন উপকরণ বিতরণ করেছেন।
সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারী) ভেদরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সামনে থেকে এ বিতরন কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রাজিবুল ইসলাম সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিতরণ অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব রাখেন উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ ফাতেমা ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন ভেদরগঞ্জ পৌর মেয়র আবুল বাশার চোকদার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবদুল মান্নান বেপারী।
উপজেলা উদ্ভিত সংরক্ষণ কর্মকর্তা আবু হানিফ, উপসহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ হাসিব, কায়সার আহম্মেদ রানাসহ কৃষক কৃষানী উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ নিজাম উদ্দীন আহাম্মেদ তার বক্তব্যে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এর নির্দেশনা এক ইঞ্চি জমিও খালি রাখা যাবেনা। সে আলোকে আপনাদের এ সকল উপকরণগুলো দেয়া হচ্ছে। আপনারা আপনাদের শ্রম মেধা দিয়ে চাষাবাদের মাঝ দিয়ে নিজের ও দেশের উন্নয়নে অবদান রাখবেন।

উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ ফাতেমা ইসলাম বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক প্রতি ইঞ্চি জায়গা ব্যবহার করতে অনাবাদি পতিত জমি ও বসত বাড়ির আঙিনায় পারিবারিক পুষ্টি বাগান স্থাপন প্রকল্পের আওতায় আজ উপজেলায় ২২৭টি পুষ্টি বাগান স্থাপনের লক্ষ্যে কৃষকদের মাঝে বাগান স্থাপনের কলাকৌশলের উপর ব্রিফিং শেষে কৃষকদের মাঝে বীজ সার, পানির ঝাঝরি, জাল ও সাইনবোর্ড সহ অন্যান্য উপকরণ বিতরণ করেন। কৃষক যেন নিজের পরিবারের চাহিদা মেটাতে পারে এবং বাড়তি আয় করতে পারে সেই লক্ষ্যে সারা বছর ব্যাপি চাষ উপযোগী বিভিন্ন মৌসুমী বীজ ও সার দেওয়া হবে।

এই মৌসুমে ডাটা শাক, লাল শাক, পুইশাক, গীমা কলমি, পাট শাক, চালকুমড়া, ধুন্দল সহ ১৮ প্রকারের সবজি বীজ ও পেয়ারা, সীড লেস লেবু, বড়ই, পেয়ারা, জাম্বুরা পেপেসহ ১১ প্রকারের ফলের চারা বিতরণ করা হয়। এ পর্যন্ত আমাদের উপজেলায় মোট ৯৬৯ টি পারিবারিক পুষ্টিবাগান স্থাপন করা হয়েছে।