• রোববার ১৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ প্রধানমন্ত্রীকে বদলে যাওয়া জীবনের গল্প শোনালেন সুবিধাভাগীরা

দপ্তরি না আসার অজুহাতে শিক্ষার্থীদের দিয়ে করানো হয় টয়লেট পরিষ্কার

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১৪ মে ২০২৪  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুরের নড়িয়ায় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরি না আসার অজুহাতে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের দিয়ে করানো হয় টয়লেট পরিষ্কার । উপজেলার ১২নং পুনাইখাঁর কান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকরা এ কাজটি করান বলে জানা যায় । তবে খোঁজ নিয়ে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা। এদিকে শিক্ষকদের দাবি, শিক্ষার্থীরা নিজেরাই কিছু রুম পরিষ্কার করেছে।

বিদ্যালয় ও স্থানীয় সূত্র জানায়, নড়িয়া উপজেলার ১২নং পুনাইখাঁর কান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ১৫২ জন। শিক্ষক আছেন চারজন। আছেন একজন দপ্তরি নাসির মিয়া তাও এক মারামারি মামলা সংক্রান্ত সমস্যার কারণে বিদ্যালয়ে আসেন না।

গত ৮ মে ছিল উপজেলা পরিষদের নির্বাচন। ওই  বিদ্যালয়টিতে নির্বাচনি কেন্দ্র পরে। নির্বাচন কেন্দ্র পরায় বিদ্যালয়ের কক্ষ, বারান্দা, মাঠ ও টয়লেটসহ সবযায়গায় অনেক ময়লা হয়ে যায়। পরেরদিন সকালে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা আসলে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের দিয়ে টয়লেট, শ্রেণিকক্ষ ও বারান্দা ও মাঠ পরিষ্কার পরিষ্কার করান বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকরা। কোমলমতি শিক্ষার্থীরা টয়লেট পরিষ্কার করছে এমন ১ মিনিট ২৭ সেকেন্ডের একটি ভিডিও স্থানীয়  সাংবাদিকদের হাতে এসেছে।

শিক্ষার্থীরা বলে, আমরা স্কুলের সব কাজই করি। আমরা বিদ্যালয়ের মাঠ, ওয়াশরুম, ক্লাসরুম পরিষ্কার করি এবং ঝাড়ু দেই।

অভিভাবকরা বলেন, বাচ্চাদের দিয়ে বিদ্যালয়ের টয়লেট পরিষ্কার করা ঠিক হয়নি। যারা করিয়েছে তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া উচিৎ।

পুনাইখাঁর কান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বাবুল হোসেন বলেন, এলাকায় মারামারি মামলা সংক্রান্ত সমস্যার কারণে দপ্তরি নাসির মিয়া  কিছুদিন ধরে স্কুলে আসতে পারছেন না। তাই একজন লোক দিয়ে রুমগুলো পরিষ্কার করে দিয়ে যায়। গত ৮ মে উপজেলা নির্বাচনের দিন আমার স্কুলে কেন্দ্র পরে। এতে রুমগুলো অনেক ময়লা হয়ে যায়। পরেরদিন সকালে আমরা শিক্ষকরা স্কুলের রুমগুলো পরিষ্কার করতে গেলে ছাত্র-ছাত্রীরা আসে, তখন ছাত্র-ছাত্রীরা বলে আপনারা বসেন আমরা রুমগুলো পরিষ্কার করি। তখন বাচ্চারা কিছু রুম পরিষ্কার করেছে।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি তানিয়া আক্তার বলেন, নির্বাচনের পরেরদিন নাকি শিক্ষার্থীদের দিয়ে টয়লেট পরিষ্কার করিয়েছে। বিষয়টি আমি জানতাম না, পরে শুনেছি। বিষয়টি আমি দেখবো। আর যেন এমন না হয়।

নড়িয়া উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শাহ মো. ইকবাল মনসুর বলেন, বিষয়টি আমি লোকমুখে জেনেছি। খোঁজ খবর নিয়ে জানবো। যদি ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়, তাহলে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।