• বৃহস্পতিবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৯

  • || ০৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
বাংলাদেশ সবসময় ভারতের কাছ থেকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পায় কর ব্যবস্থাপনা তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী আইসিওয়াইএফ থেকে পাওয়া সম্মাননা প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর শিক্ষা ব্যবস্থা যাতে পিছিয়ে না যায় সে ব্যবস্থা নিচ্ছি প্লিজ যুদ্ধ থামান, সংঘাত থামাতে সংলাপ করুন: শেখ হাসিনা হানিফের সংগ্রামী জীবন নতুন প্রজন্মের রাজনৈতিক কর্মীদের দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করবে মোহাম্মদ হানিফ ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন পরীক্ষিত নেতা বাংলাদেশ যেন দুর্ভিক্ষের কবলে না পড়ে: প্রধানমন্ত্রী সংঘাত-দুর্যোগে নারীদের দুর্দশা বহুগুণ বাড়ে: প্রধানমন্ত্রী

পা হারানো পলিনের পাশে সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৩ আগস্ট ২০২১  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

পা হারানো পলিনের সহযোগিতায় এগিয়ে এলো শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্য ইকবাল হোসেন অপু । মঙ্গলবার (০৩ আগস্ট) দুপুর সোয়া ১টার দিকে পলিনকে ঘর তোলার জন্য টিন দিয়ে সাহায্য করেন সংসদ সদস্য।

সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু বলেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার ত্রাণ তহবিল থেকে সদর উপজেলার দক্ষিণ আটং গ্রামের পলিন ছৈয়াল ও রুদ্রকর হোগলা গ্রামের শাহআলম হাওলাদারকে ঘর তোলার জন্য টিন দেয়া হলো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে বাংলার মানুষ তিন বেলা পেট ভরে খেতে পায়, ঘর পায়। তাই প্রধানমন্ত্রীর জন্য সকলে দোয়া করবেন। তিনি যেন দীর্ঘজীবী হোন। 

এসময় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মনদীপ ঘরাই, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. বাসিত সাত্তার, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. জামাল ফকির প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। 

উল্লেখ্য, গাড়ির হেলপারি করে সংসার চালাতেন পলিন। একটি দুর্ঘটনা কেড়ে নিয়েছে তার জীবনের সব স্বপ্ন। পা হারিয়ে হুইল চেয়ারে বসে ভিক্ষা করেন পলিন ছৈয়াল (৪১)। তিনি শরীয়তপুর পৌরসভার ৬নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ আটং গ্রামের মৃত জলিল ছৈয়াল ও নুরজাহান বেগমের ছেলে। 

২০১৫ সালে শরীয়তপুর থেকে যশোরে যাওয়ার সময় ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে থাকা গাছের সঙ্গে ধাক্কা লাগলে ডান পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় পলিনের। অস্ত্রোপচার করে তার পা জোড়া লাগানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন চিকিৎসকরা। কোনো রকমে রক্ষা পায় বাম পা। তবে এক পায়ে আর দাঁড়াতে পারেননি পলিন। তাই হুইল চেয়ারে বসে ভিক্ষা করে সংসার চালান তিনি।