• শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা

ভেদরগঞ্জের সখিপুরে স্বাস্থ্য সচেতনতায় তথ্য আপার উঠান বৈঠক

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৩১ ডিসেম্বর ২০২২  

শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ ভেদরগঞ্জ উপজেলা তথ্য ও যোগাযোগ  কর্মকর্তা ( তথ্য আপার) আয়োজনে উপজেলার সখিপুর ইউনিয়নের আশ্রয় কেন্দ্রে স্বাস্থ্য সচেতনতা মুলক উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।
৩১ ডিসেম্বর (শনিবার) সকালে অনুষ্ঠিত বৈঠকে  প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল্লাহ আল মামুন। উপজেলা তথ্য আপা সাবিনা ইয়াসমিন এর সভাপতিত্বে প্রধান আলোচক ছিলেন তারাবুনিয়া ২০ শয্যা হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডাঃ ফাতিমা মাহজাবীন। বিশেষ অতিথি ছিলেন সখিপুর ইউনিয়ন পরিষদের সচিব মোঃ কবির হোসেন।

প্রধান আলোচক ডাঃ ফাতিমা মাহজাবীন বলেন,নারীর ক্ষমতায়ন ও উন্নয়নের অন্যতম পূর্বশর্ত হচ্ছে তার স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করা। একটি জাতির স্বাস্থ্যমানের ওপর নির্ভর করে তার উন্নয়নের গতি প্রকৃতি। দেশের অর্ধেক জনগোষ্ঠী নারীর স্বাস্থ্যমানকে পিছিয়ে রেখে সার্বিক স্বাস্থ্যসূচকে কাক্সিক্ষত মান অর্জন করা সম্ভব নয়। সরকারও এ খাতটিকে গুরুত্ব দিয়ে নারীস্বাস্থ্য উন্নয়নের সকল কার্যক্রমকে তৃণমূল পর্যায়ে পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। এতে উল্লেখযোগ্যহারে কমে এসেছে মাতৃমৃত্যু ও শিশুমৃত্যুর হার।  এ অগ্রগতির স্বীকৃতিস্বরূপ অর্জিত হয়েছে বেশকিছু আন্তর্জাতিক সম্মাননা। স্বাস্থ্যখাতে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে দেশের নারী ও শিশুদের উন্নয়নে ভূমিকা রাখার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১১ সালে জাতিসংঘের সাউথ-সাউথ অ্যাওয়ার্ড এবং শিশুমৃত্যুর হার হ্রাসে অসাধারণ সাফল্যের জন্য এমডিজি অ্যাওয়ার্ড-২০১০ অর্জন করেছেন। এছাড়াও নারী শিক্ষা প্রসারের জন্য প্রধানমন্ত্রী ২০১৪ সালে ইউনেস্কো’র ‘ট্রি অভ পিস’ পুরস্কার অর্জন করেছেন।
প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী অফিসার  আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন,

বিশ্বজুড়ে স্বাস্থ্য ও চিকিৎসার অগ্রগতিতে ঐতিহাসিক ভূমিকা রেখেছে প্রযুক্তি। বাংলাদেশ এর ব্যতিক্রম নয়। গড় আয়ু বৃদ্ধি, শিশু স্বাস্থ্য ও পুষ্টির উন্নতি, মাতৃমৃত্যু হ্রাস, কার্যকর জন্মনিয়ন্ত্রণ—দেশের স্বাস্থ্য খাতের এসব অগ্রগতিতে বড় ভূমিকা রেখেছে প্রযুক্তি। বাংলাদেশ সরকার প্রযুক্তির উৎকর্ষ সাধনের মাঝদিয় প্রান্তিক জনগোষ্ঠির হাতের নাগালে স্বাস্থ্য সেবা পৌছে  দিচ্ছে। তারই অংশ হিসেবে আজ আমরা একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক সহ আপনাদে দোয়ারে হাজির হয়েছি।এটা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা এঁর আন্তরিক ইচ্ছার প্রকাশ।