• শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২১ ১৪২৯

  • || ১৩ রজব ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় আরেকটি মাইলফলক স্থাপিত হলো: প্রধানমন্ত্রী জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী ২০২২ সালে বিদেশে গেছেন ১১ লাখ ১৩ হাজার ৩৭৪ কর্মী: প্রধানমন্ত্রী পাতাল রেল নির্মাণকাজের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী সাগরের পানি থেকে হাইড্রোজেন বিদ্যুৎ উৎপাদনে আলোচনা চলছে

ব্যারিস্টার সুমনের দলকে হারিয়ে পালং-জাজিরা একাদশের জয়

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২৩  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি  শেখ হাসিনা গোল্ডকাপ প্রীতি ফুটবল ম্যাচে-২০২৩ ব্যারিস্টার সুমন ফুটবল একাডেমিকে ০-১ গোলে হারিয়ে জয়লাভ করে পালং-জাজিরা একাদশ, শরীয়তপুর।

খেলা শেষে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচিত ব্যক্তিত্ব ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন বলেন, গিয়েছিলাম কানাডা, গিয়ে দেখি সব দুর্ণীতিবাজ, টাউট-বাটপাররা বাড়ি বানিয়েছে। যারা দুর্ণীতি করে তাদের বলবো সেকেন্ড হোম কানাডা না বানিয়ে একটা বাড়ি বাংলাদেশে বানান। এখানে খুব ভালো থাকবেন। দেশের মানুষের মনে প্রেম আছে, প্রেমের যায়গায় আসেন।

ব্যারিস্টার সুমন দর্শকদের উদ্দেশ্যে বলেন, একটি তৃনমুল পরিবার থেকে ওঠে এসে, আমি আজ ব্যারিস্টার। আমার যায়গা থেকে আমি যদি ওঠে আসতে পারি, আপনারা কেন পারবেন না।
আপনারা একটু পড়াশোনা করেন একটু খেলাধুলা করেন। পরের ছেলের প্রতি আর কত আদর আর ভালোবাসা দেখাবেন। নিজের ছেলেটাকে তৈরি করা শিখান। নিজের ছেলে  ফুটবল ও ক্রিকেট ভালো খেললে ভালো লাগে।

তিনি বলেন, আমি চাচ্ছি আমাদের ফুটবল যেন হারিয়ে না যায়। দেখেন ব্রাজিল- আর্জেন্টিনার জন্য আমরা যেভাবে পাগল হয়েছি। আমার কাছে মনে হচ্ছে আমাদের ছেলেরা যদি বিশ্বকাপে যেত তাহলে মনে হয় পুরো বাংলাদেশ পাগল হয়ে যেত।আমাদের কিছু লোকের দুই নম্বরির কারণে ফুটবলটাকে আমরা আগাতে পারি না। চেষ্টা করলে এমন কিছু নাই যে পারা যায় না। আমি ইন্ডিয়ার ত্রিপুরাতে টিম নিয়া খেলতে গিয়েছিলাম। আমি বলেছিলাম আমরা বঙ্গবন্ধুর উত্তরাধীকার। বঙ্গবন্ধু আদর্শের নেতা ছিলেন।  আমরা তাকে দেখি নাই, তবে এই শরীরের মধ্যে তাঁর আদর্শ আছে। আমি তাদের বলেছিলাম ৭১ সালে আমাদের যেভাবে সহযোগিতা করছিলেন। যদি সুযোগ পাই এটা আমরা সোদ দেয়ার চেষ্টা করবো।

তিনি আরও বলেন, আমিতো পাঁচ ফিট আট ইঞ্চি। আমার শরীরের চেয়ে আমার কলিজা বড়। শরীয়তপুর এসে যা দেখলাম তাতে আপনাদের কলিজা অনেক বড়। আমি আপনাদের ভালোবাসার কাছে হেরে গেছি। আমি হেরেছি বা আপনারা জিতেছেন এটার জন্য আমি আসি নাই। আমি ততদিন পর্যন্ত মাঠে থাকবো, যতদিন পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় একটি সোনার ফুটবল টিম না হবে।

শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) বিকেলে শরীয়তপুরে বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্স নায়েক মুন্সী আব্দুর রউফ স্টেডিয়ামে এ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। এই প্রীতি ফুটবল ম্যাচের সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু এবং আয়োজনে ছিলেন আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট সুলতান হোসেন মিয়া ফাউন্ডেশন।

ব্যারিস্টার সুমন ফুটবল একাডেমি বনাম পালং-জাজিরা একাদশ, শরীয়তপুরের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয় এ প্রীতি ম্যাচ।

আলোচিত এ ব্যারিস্টার তার ফুটবল একাডেমি নিয়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ খেলতে গিয়েছেন। সবগুলো খেলাতেই দর্শকদের উপচেপড়া উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। শরীয়তপুরে  আজও হাজার হাজার দর্শকদের সমাগম হয়েছে।

খেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু। এছাড়া জেলা প্রশাসক মো. পারভেজ হাসান, পুলিশ সুপার মো. সাইফুল হক, জাজিরা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোবারক আলী সিকদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত অতিথিরা পালং-জাজিরা একাদশ, শরীয়তপুর ও ব্যারিস্টার সুমনের হাতে কাপ তুলে দেন।

শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু বলেন, ব্যারিস্টার সুমন ফুটবল একাডেমির সঙ্গে আমাদের ফুটবল টিমের খেলা হয়েছে। সমাজকে মাদক থেকে দূরে রাখতে খেলাধুলার বিকল্প নেই। যুবসমাজকে মাদক থেকে দূরে রাখতে আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। আমরা মাদককে না বলব, সন্ত্রাসকে না বলব। ব্যারিস্টার সুমন শরীয়তপুর আসায় তাকে ধন্যবাদ জানান তিনি।