• রোববার ১৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১ ১৪৩১

  • || ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ প্রধানমন্ত্রীকে বদলে যাওয়া জীবনের গল্প শোনালেন সুবিধাভাগীরা

গোসাইরহাটে নিবন্ধিত জেলেদের মাঝে বকনা বাছুর বিতরণ

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৯ মে ২০২৩  

শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে জাটকা ও মা ইলিশ আহরণ নিষিদ্ধের সময়ে ২০২২-২০২৩ অর্থ বছরে ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় নিবন্ধিত ১৭ জেলের মাঝে বকনা বাছুর বিতরণ করা হয়েছে।
সোমবার (৮ মে) বেলা ১টার সময় উপজেলা পরিষদ  চত্বরে উপজেলা মৎস্য দপ্তরের আয়োজনে জেলেদের মাঝে বকনা বাছুর (গরু) দেওয়া হয়।
উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা হাসিবুল হকের সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী  অফিসার কাফী বিন কবির।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আমিনুল হক, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শেখ মোহাম্মদ আবুল খায়ের, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোসাঃ নাজমা বেগম, উপজেলা আইসিটি অফিসার মাইনুল ইসলাম প্রমুখ৷

 প্রধান অতিথির বক্তব্য উপজেলা নির্বাহী  অফিসার কাফী বিন কবির বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবাইকে নিয়ে ভাবেন বলেই, জাটকা ইলিশ রক্ষা মৌশুমে জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থান ও তাদের জীবন মান উন্নয়নের জন্য তিনি বরাদ্দ দিয়েছেন। সঠিক জেলে যেন বাছুর পায় এবং সঠিক ভাবে লালন পালন করে নিজেদের ভাগ্য উন্নয়ন করতে পারে সেদিকে সজাগ দৃষ্টি  রাখার জন্য মৎস্য বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের প্রতি আহবান জানান।তিনি আরো বলেন, ইলিশ সম্পাদ রক্ষার জন্য সরকার আপনাদের সহায়তা দিচ্ছে। সরকারের দেয়া সহায়তার সঠিক ব্যবহার করে আপনারা ইলিশ সম্পদ উন্নয়নে ভুমিকা রাখবে। যারা সরকারি বিধান অমান্য করে জাটকা  ধরবেন তাদের বিরুদ্ধে আমরা আইনগত পদক্ষেপ নিব। আর মনে রাখবেন এ গরু দেয়া হচ্ছে আপনার ভাগ্য উন্নয়নের জন্য কোন ভাবেই বিক্রি করা যাবেনা।
শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে জেলেদের হাতে বকনা বাছুর তুলে দেন অতিথিরা।গোসাইরহাট উপজেলায় নিবন্ধিত ৬ হাজার ৬শ ৬১ জন জেলের মধ্যে এই প্রকল্পের আওতায় পর্যায়ক্রমে বিকল্প কর্মসংস্থানের জন্য প্রশিক্ষণ প্রদান ও উপকরণ বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।