• বুধবার ২৯ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪৩১

  • || ২০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
বাংলাদেশ বিশ্ব শান্তি রক্ষায় এক অনন্য নাম : রাষ্ট্রপতি রাত ২টা পর্যন্ত নিজেই দুর্যোগ মনিটর করেছেন প্রধানমন্ত্রী রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ দ্রুত মেরামতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বৃহস্পতিবার পটুয়াখালী যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় যাবেন শেখ হাসিনা ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ গড়ার অগ্রযাত্রায় মার্কিন ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর জীবনীভিত্তিক ডকুমেন্টারি ‘কলকাতায় মুজিব’ অবলোকন ঢাকাবাসীকে সুন্দর জীবন উপহার দিতে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড় রেমাল : ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি ধর্মনিরপেক্ষতা মানে ধর্মহীনতা নয়: প্রধানমন্ত্রী

বার বার কৌশলে হেরে যাচ্ছে বিএনপি

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ২২ মার্চ ২০২৩  

তৃণমূল পর্যায়ের প্রায় আড়াই হাজার নেতা-কর্মীর সঙ্গে মতবিনিময় করেছে বিএনপি। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বৃহত্তর গণআন্দোলন গড়ে তোলাই বিএনপির এ মতবিনিময়ের লক্ষ্য। তবে তাদের এই কর্মসূচি কতটা সফল হবে, এ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।
বিএনপির দায়িত্বশীল সূত্রগুলো বলছে, কার্যত এ মতবিনিময়ের আয়োজন করা হয়েছে তৃণমূলের গুরুত্বপূর্ণ ও জনসম্পৃক্ত নেতাদের আরো সক্রিয় করতে।

দলের দায়িত্বশীল একাধিক সূত্র জানায়, সরকারবিরোধী বৃহত্তর আন্দোলন গড়ার লক্ষ্য নিয়ে মতবিনিময়ের আয়োজন করা হলেও এর সফলতা নিয়ে বেশ সংশয় রয়েছে। কারণ, প্রতিটি মতবিনিময়ের আগে দলের শীর্ষ নেতারা সামনের আন্দোলনের কর্মসূচি ও কৌশল নিয়ে চেয়ারম্যানদের মতামত জানতে চেয়েছেন। তবে অধিকাংশ চেয়ারম্যানই সুনির্দিষ্ট কোনো মতামত বা পরামর্শ দিতে পারেননি।

তাদের বেশিরভাগের বক্তব্যে দলের স্থানীয় নেতৃত্ব ও সাংগঠনিক বিষয়ে ক্ষোভ-অসন্তোষ প্রকাশ পেয়েছে। অনেকে আবার থানা, জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ের নেতাদের বিরুদ্ধেও নানা অভিযোগ তুলেছেন।

এসব বিষয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কার্যকর ও ফলপ্রসু করতে সরকার এবং বিরোধীদল-উভয়েরই ভূমিকা রয়েছে। বিএনপি যদি নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে, তবে দীর্ঘদিন ধরে সরকারের বিরুদ্ধে বিএনপি যে ধরনের অভিযোগ করে আসছে, তা একেবারেই মিথ্যা প্রমাণিত হবে। আবার বিএনপি যে গণতান্ত্রিক দল, এটি প্রমাণে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা নিয়েও আন্তর্জাতিক মহলে বিএনপির ওপর একটি চাপ রয়েছে।

এছাড়া অতীতেও সরকারকে হুমকি-ধমকি ও পতনের ইস্যুতে অযৌক্তিক এবং মনগড়া বিএনপির নানা আন্দোলন ব্যর্থ হয়েছে। এবারও তাদের এই মতবিনিময় কার্যত কোনো ফল বয়ে আনবে না, কারণ বিএনপির অভ্যন্তরীণ নেতৃত্ব ও সাংগঠনিক বিষয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ এখনো কাটেনি। এছাড়া দলের অন্যান্য সংকট তো রয়েছেই। তাই বার বার নিজেদের কৌশলে নিজেরাই হেরে যাচ্ছে বিএনপি।