• মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ৩ ১৪৩১

  • || ০৬ শাওয়াল ১৪৪৫

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
নতুন বছর মুক্তিযুদ্ধবিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রেরণা জোগাবে : প্রধানমন্ত্রী আ.লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণকে দিতে, আর বিএনপি আসে নিতে: প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা রাষ্ট্রপতির দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী কিশোর অপরাধীদের মোকাবেলায় বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ব্রাজিলকে সরাসরি তৈরি পোশাক নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জুলাইয়ে ব্রাজিল সফর করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী আদর্শ নাগরিক গড়তে প্রশংসনীয় কাজ করেছে স্কাউটস: প্রধানমন্ত্রী স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় স্কাউট আন্দোলনকে বেগবান করার আহ্বান

রোজার নিয়ত কী, এটা কতটা গুরুত্বপূর্ণ?

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১৩ মার্চ ২০২৪  

রোজা পালনে নিয়ত করা জরুরি। তবে নিয়ত মুখে উচ্চারণ করা আবশ্যক নয়। রোজা রাখার উদ্দেশ্যে ঘুম থেকে ওঠা ও সেহরি খাওয়াটাই রোজার নিয়তের অন্তর্ভুক্ত। মূলত মনের ইচ্ছাই হলো নিয়ত। তাই মুখে নিয়ত না করলেও রোজা সহি হয়ে যাবে। (রদ্দুল মুহতার, পৃষ্ঠা : ৩/৩৩৯-৩৪১ ও ফাতাওয়া হিন্দিয়া, পৃষ্ঠা : ১/১৯৫)

সমাজে রোজার একটি আরবি নিয়ত প্রচলিত আছে। সেটি হলো (উচ্চারণ)- ‘নাওয়াইতু আন আছুমা গাদাম, মিন শাহরি রমাদানাল মুবারাক; ফারদাল্লাকা ইয়া আল্লাহু, ফাতাকাব্বাল মিন্নি ইন্নিকা আনতাস সামিউল আলিম।’

অর্থ: হে আল্লাহ! আমি আগামীকাল তোমার পক্ষ থেকে পবিত্র রমজানের নির্ধারিত ফরজ রোজা রাখার ইচ্ছা পোষণ (নিয়ত) করলাম। অতএব তুমি আমার পক্ষ থেকে (আমার রোজা তথা পানাহার থেকে বিরত থাকাকে) কবুল কর, নিশ্চয়ই তুমি সর্বশ্রোতা ও সর্বজ্ঞানী।

এই বাক্যটি হাদিস ও ফিকহের কোনও কিতাবে বর্ণিত হয়নি। উপমহাদেশের বিখ্যাত ইসলামি বিদ্যাপীঠ করাচির জামিয়াতুল উলুমিল ইসলামিয়্যাহর ফতোয়ায় এ প্রসঙ্গে বলা হয়েছে, এটি কোনও দোয়া নয়; বরং নিয়তের শব্দমালা। এটি মানুষের সহজার্থে লেখা হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটি বলছে, মনে মনে নিয়ত করার পাশাপাশি কেউ যদি উপরোল্লিখিত বাক্যটি পাঠ করে, তাহলে মনের নিয়তের পাশাপাশি মুখেও নিয়ত উচ্চারিত হয়ে গেল। (ফতোয়া নম্বর : ১৪৩৯০৯২০০১২৩)