• সোমবার   ১৬ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৯

  • || ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩

শরীয়তপুর বার্তা

যে দুই ধরনের রোগীদের জন্য ছোলা মারাত্মক ক্ষতিকর

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ২৪ এপ্রিল ২০২২  

সারাদিন রোজা রেখে সকল মুসলিমগণ সন্ধ্যায় ইফতার করেন। ইফতারে বিভিন্ন ভাজাপোড়ার সঙ্গে থাকে ছোলাও। বলা চলে, ছোলা ছাড়া ইফতার করার কথা চিন্তাই করা যায় না। প্রোটিনের সবচেয়ে ভালো উৎস হলো ছোলা। এছাড়া ছোলায় রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ। 

এই ডালে রয়েছে প্রচুর ফাইবার। যা দীর্ঘক্ষণ পেট ভরিয়ে রাখতে সাহায্য করে। বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, ছোলায় থাকা ফাইবার রক্তে উপস্থিত গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। এজন্য ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে ছোলা খাওয়া বেশ উপকারী। তবে ছোলা খেলে অনেকের গ্যাস্ট্রিক, বুক জ্বালা-পোড়া ও পেট ভাঁপার সমস্যাও হতে পারে। 

তাছাড়া কিডনি রোগীদের ক্ষেত্রে ছোলা বিপদ ঢেকে আনতে পারে। তাই যাদের হৃদরোগ বা কিডনির সমস্যা রয়েছে তারা ছোলা খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

হৃদরোগে আক্রান্তরা সাধারণত যেসব ওষুধ খেয়ে থাকেন তাতে বিটা-ব্লকার উপাদান থাকে। এই বিটা-ব্লকার রক্তে এমনিতেই পটাশিয়ামের মাত্রা বাড়ি দেয়। সেই সঙ্গে যদি তারা ছোলা বা পটাশিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খায় তবে এর মাত্রা আরো বেড়ে যায়। যা বিপদের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। 

অন্যদিকে যাদের কিডনির সমস্যা রয়েছে তাদের ক্ষেত্রেও উচ্চ মাত্রায় পটাশিয়াম গ্রহণে বিপত্তি ঘটতে পারে। এতে করে কিডনি রক্ত ​​থেকে অতিরিক্ত পটাশিয়াম ফিল্টার করতে সক্ষম হয় না। ফলে কিডনির সমস্যা আরো বেড়ে যায়। 

রোজার সময় প্রচুর তেল দিয়ে ছোলা ভুনে খাওয়ার অভ্যাস রয়েছে অনেকের। বেশি তেল দিয়ে ছোলা রান্না করে খেলে এর পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়। বরং ছোলা সিদ্ধ করে তার সঙ্গে টমেটো, শসা, কাঁচা মরিচ ও সরিষার তেল মিশিয়ে নিলে সেটাই স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারী হবে।