• বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৫ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী আইসিওয়াইএফ থেকে পাওয়া সম্মাননা প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর শিক্ষা ব্যবস্থা যাতে পিছিয়ে না যায় সে ব্যবস্থা নিচ্ছি প্লিজ যুদ্ধ থামান, সংঘাত থামাতে সংলাপ করুন: শেখ হাসিনা হানিফের সংগ্রামী জীবন নতুন প্রজন্মের রাজনৈতিক কর্মীদের দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করবে মোহাম্মদ হানিফ ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন পরীক্ষিত নেতা বাংলাদেশ যেন দুর্ভিক্ষের কবলে না পড়ে: প্রধানমন্ত্রী সংঘাত-দুর্যোগে নারীদের দুর্দশা বহুগুণ বাড়ে: প্রধানমন্ত্রী ১০ ডিসেম্বর বিএনপির মহাসমাবেশ, পরিবহন ধর্মঘট না ডাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর সচিবদের যেসব নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

দেশে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির চক্রান্ত সরকার টিসিবির মাধ্যমে প্রতিহত করেছে- নাহিম রাজ্জাক

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ২৪ মার্চ ২০২২  

শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ
 শরীয়তপুর -৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নাহিম রাজ্জাক বলেছেন,নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায় গ্রামে বসে শহরের সেবা নিশ্চিত করার জন্য কাজ করে যাচ্ছে সরকার। জনগনের দোয়ারে কাঙ্খিত উন্নয়ন সেবা পৌছে দেয়ার জন্য সরকারের কেন্দ্র থেকে শুরু করে স্থানীয় পর্যায় পর্যন্ত সবাই আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে বলে দেশ সর্ব ক্ষেত্রে সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছে। আর এটা সম্ভব হয়েছে জাতির জনকের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা এর সফল নেতৃত্বে কারনে।

তিনি বুধবার বেলা ১১টায় জেলার ডামুড্রা উপজেলা পরিষদের উন্নয়ন সমন্ধয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। তিনি বলেন, দেশের সর্বত্র পৌঁছে গেছে বিদ্যুৎ। দুর্গম পাহাড়, দ্বীপ, কিংবা চরাঞ্চল; শতভাগ মানুষ এখন বিদ্যুৎ সুবিধার আওতায়। ঘরে ঘরে জ্বলছে আলো। ১৩ বছরে গ্রাহক বেড়েছে সোয়া তিন কোটি। উৎপাদন ক্ষমতা বৃদ্ধি প্রায় ২২ হাজার মেগাওয়াট। একের পর এক চালু হচ্ছে বিদ্যুৎ কেন্দ্র। আলোকিত হচ্ছে নতুন নতুন জনপদ। ২০০৯ সালে মাত্র ৪৭ শতাংশ মানুষ বিদ্যুৎ সুবিধার আওতায় ছিল। আর এখন পাচ্ছেন শতভাগ। সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে দ্বীপ ও চরাঞ্চলেও বিদ্যুৎ। বাদ যায়নি দুর্গম পাহাড়। এতে শহরের পাশাপাশি চাঙ্গা হচ্ছে গ্রামীণ অর্থনীতি।  “গ্রামীণ অর্থনীতিতে ছোট ছোট যে শিল্পগুলো, ক্ষুদ্র উদ্যোগ যেগুলো কুটিরশিল্প সেই জায়গায় একটি বড় ভূমিকা রাখছে বিদ্যুৎ। এর মাধ্যমে গ্রামীণ কর্মসংস্থানের সৃষ্টি। গ্রাম থেকে মানুষের শহরে আসার প্রবণতাকে নিরুৎসাহিত করা, অর্থাৎ গ্রামে থেকেই মানুষ তার কর্মসংস্থান করতে পারে।” বিদ্যুৎ বিভাগের তথ্য বলছে, গেল ১৩ বছরে ৩ কোটি ১৫ লাখ নতুন গ্রাহক পেয়েছে দেশের বিদ্যুৎ খাত। গ্রাহকের সংখ্যা এখন ৪ কোটি ২৫ লাখের বেশি। সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৫৩ শতাংশ।  গেল একযুগে উৎপাদন-ক্ষমতা বেড়েছে প্রায় ২২ হাজার মেগাওয়াট। দেশের মেগা প্রকল্প কর্নফুলি ট্যার্নেল, মেট্রোরেল ও পদ্মাবহুমুখি সেতু আমাদের হাতছানি দিচ্ছে। জুনে খুলে যাবে আমাদের স্বপ্নে সেতু পদ্মা।আমাদের ডামুড্যা উপজেলার উন্নয়ন ও কল্পনাতীত সম্প্রসারিত উপজেলা ভবন, শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম, সরকারি আব্দুর রাজ্জাক কলেজ,নার্সিং ইনিষ্টিউটসহ অসংখ্য বড় বড় প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে। তাই জনগন তাদের প্রত্যাশা অনুযায় সেবা পাচ্ছে বলেই আমাদের সাথে থাকবে। তিনি বলেন  সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দেশে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির যে চক্রান্ত হয়েছিল। সরকার টিসিবি পণ্য ভর্তুকি মূল্যে বাজারে বিক্রি করে তাও প্রতিহত করে দিয়েছে। নাহিম রাজ্জাক বলেন, বাংলার মানুষ ভাল ভাবেই জানে বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ তার কন্যা শেখ হাসিনার হাতেই নিরাপদ।

ডামুড্য উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে, উপজেলা চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন মাঝির সভাপতিত্বে সভায়, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিয়ান আহমেদ, পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম রাজা ছৈয়াল, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবদুর রশীদ গোলন্দাজ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খাদিজা খানম লাভলী সহ বিভিন্ন দপ্তরের প্রধান ও ইউপি চেয়ারম্যান গন উপস্থিত ছিলেন।