• রোববার   ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২৩ ১৪২৯

  • || ১৪ রজব ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:

গভীর রাতে সিজদায় লুটিয়ে পড়েন আল্লাহর প্রিয় বান্দারা

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ১৫ অক্টোবর ২০২২  

তাহাজ্জুদ নামাজ হলো আম্বিয়া আলাইহিমুস সালামের সুন্নত। আল্লাহ তাআলার প্রিয় বান্দাদের অভ্যাস। আল্লাহ তাআলার সঙ্গে বান্দার গভীর সম্পর্ক স্থাপন তথা নৈকট্য ও সন্তোষ অর্জনের অন্যতম পন্থা। তাই তো রাত গভীর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আল্লাহপ্রেমীদের প্রেমও গভীর হতে থাকে। তারা নির্জনে রাতের আঁধারে প্রভুর কুদরতি পায়ে লুটিয়ে পড়ে ক্ষমা ভিক্ষা চান নিজ নিজ অপরাধ ও অক্ষমতার।
বদরের ময়দানে সত্যের ফুল ফোটাতে মুজাহিদরা রাতের শেষ প্রহরে জেগে উঠতেন। চোখের পানি ফেলে কাঁদতেন আর আল্লাহ তাআলার কাছে গুনাহ মাফ চাইতেন।
 
আল্লাহ তাআলা পবিত্র কোরআনে এরশাদ করেন, ‘এসব লোক অগ্নিপরীক্ষায় অটল ও অবিচল, সত্যের অনুরাগী, পরম অনুগত, আল্লাহর পথে সম্পদ উৎসর্গকারী এবং রাতের শেষ প্রহরে আল্লাহর কাছে ভুলত্রুটির জন্য ক্ষমা প্রার্থী।’ (সুরা আলে ইমরান, আয়াত: ১৭)

আল্লাহ তাআলা এই রাতকে ঘুম অথবা স্রষ্টাকে নিজের করে নেওয়ার মাধ্যম বানিয়েছেন। তাই তো তিনি রাতের ভাঁজে ভাঁজে এত সৌন্দর্য ঢেলে দিয়েছেন।

আল্লাহ তাআলা এরশাদ করেন, ‘নিশ্চয়ই নভোমণ্ডল ও ভূমণ্ডল সৃজনে এবং দিন-রাতের পরিবর্তনে সুস্পষ্ট নিদর্শন রয়েছে জ্ঞানীদের জন্য। যারা দাঁড়িয়ে, বসে, শুয়ে আল্লাহর জিকির করে এবং নভোমণ্ডল ও ভূমণ্ডল সৃজন নিয়ে চিন্তাভাবনা করে। (তারা স্বতঃস্ফূর্তভাবে স্বীকার করতে বাধ্য হয়) হে আমার প্রতিপালক, আপনি এগুলো বৃথা সৃষ্টি করেননি। আপনি বৃথা সৃষ্টি করার দোষ থেকে পবিত্রতম।’ (সুরা আল ইমরান, আয়াত: ১৯০, ১৯১, ১৯২)

তাহাজ্জুদের ফজিলত বর্ণনাতীত। মহান আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘রাতের কিছু অংশে তাহাজ্জুদ নামাজ কায়েম করুন; এটা আপনার জন্য এক অতিরিক্ত কর্তব্য। আশা করা যায়, আপনার প্রতিপালক আপনাকে প্রতিষ্ঠিত করবেন মাকামে মাহমুদে (প্রশংসিত স্থানে)।’ (সুরা বনি ইসরাইল, আয়াত: ৭৯)

এই প্রেমময় ইবাদতের মাধ্যমেই তারা আল্লাহর প্রিয় বান্দায় পরিণত হন। আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘আল্লাহর প্রিয় বান্দা তারা, যারা তাদের প্রতিপালকের দরবারে সেজদা করে এবং দাঁড়িয়ে থেকেই রাত কাটিয়ে দেয়।’ (সুরা ফুরকান, আয়াত: ৬৩-৬৪)

আসুন, তারাভরা রাতে রুপালি চাঁদের ইন্দ্রজালে মুগ্ধ হয়ে এই রাত এবং রাতের প্রকৃতির সৃষ্টিকর্তার দরবারে লুটিয়ে পড়ি।