• রোববার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৯

  • || ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর চট্টগ্রাম সফরে ৩০ প্রকল্প উদ্বোধন প্রতিবন্ধীদের ছাড়া রাষ্ট্রের সামগ্রিক উন্নয়ন সম্ভব নয়: শেখ হাসিনা গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে কত প্রাণ ঝরেছে হিসাব নেই পার্বত্য চট্টগ্রামসহ দেশের সর্বত্র শান্তি বজায় রাখতে সরকার বদ্ধপরিকর : প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধু ট্রাস্টের সভা বাংলাদেশ সবসময় ভারতের কাছ থেকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পায় কর ব্যবস্থাপনা তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী আইসিওয়াইএফ থেকে পাওয়া সম্মাননা প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর শিক্ষা ব্যবস্থা যাতে পিছিয়ে না যায় সে ব্যবস্থা নিচ্ছি

পাকিস্তানিদের ওপর চেয়ার দিয়ে আক্রমণ আফগান সমর্থকদের

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৮ সেপ্টেম্বর ২০২২  

দ্বন্দ্বটা শুরু হয়েছিল মাঠেই। পাকিস্তানি ব্যাটার আসিফ আলি আউট হওয়ার পর মেজাজ হারিয়ে ব্যাট হাতে তেড়ে যান আফগানিস্তানের বোলার ফরিদ আলমের দিকে। ম্যাচশেষে সে রেশটা গিয়ে আছড়ে পড়ে গ্যালারিতে। রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে এক উইকেটের হার মেনে নিতে পারেননি আফগান সমর্থকরা। চেয়ার তুলে আক্রমণ করে বসেন পাক সমর্থকদের ওপর।

চলতি এশিয়া কাপে ক্রিকেট বিশ্ব রুদ্ধশ্বাস এক লড়াই দেখেছে বৃহস্পতিবার (০৮ সেপ্টেম্বর) সুপার ফোরে পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের ম্যাচে। শেষ ওভারে বাবর বাহিনীর জয়ের জন্য প্রয়োজন ১১ রান। হাতে আছে মাত্র একটি উইকেট। বোলিং আক্রমণে আফগানদের সেরা পেসার ফজলহক ফারুকী। এর পরের ইতিহাস সবার জানা।

১৯ বছরের তরুণ নাসিম শাহ কীভাবে পর পর দুই বলে দুই ছক্কা হাঁকিয়ে পাকিস্তানকে জয় উপহার দিয়েছিল। যেটাকে পাকিস্তানের সাবেক কিংবদন্তি পেসার ওয়াসিম আকরাম ৩৬ বছর আগে অস্ট্রেলেশিয়া কাপের ফাইনাল ভারতের বিপক্ষে জাবেদ মিয়াঁদাদের হাঁকানো সে ঐতিহাসিক ম্যাচ জেতানো ছক্কার সঙ্গে তুলনা করেছেন।

এদিকে ম্যাচ জয়ের খুব কাছে গিয়েও এভাবে একজন বোলারের কাছে হারটা যেন কোনোভাবেই মানতে পারেননি গ্যালারিতে বসে থাকা আফগান সমর্থকরা। ম্যাচশেষে চেয়ার তুলে তারা হামলে পড়েন পাক সমর্থকদের ওপর।

নিজ দেশের সমর্থকদের ওপর আক্রমণের একটি ভিডিও ফুটেজ সামাজিকমাধ্যমে পোস্ট করে ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা যায় সাবেক পাক পেসার শোয়েব আখতারকে। ভিডিওটির ক্যাপশনে তিনি লেখেন, ‘আফগান ভক্তরা এটা কী করছে? এটা তারা অতীতে একাধিকবার করেছে। এটি একটি খেলা এবং এটি সঠিক মেজাজে পরিচালিত হওয়া উচিত।’

আক্রমণাত্মক মেজাজটা অবশ্য মাঠের খেলায় শুরু হয়ে গিয়েছিল আরও আগেই। আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয়ের জন্য পাকিস্তানের প্রয়োজন ছিল ৮ বলে ১২ রান। উইকেটে ছিলেন একমাত্র জাত ব্যাটার আসিফ আলি। বাবর বাহিনীকে জেতাতে হলে, তখন তিনিই শেষ ভরসা।

এমন সময়ে আফগান পেসার ফরিদ আহমেদের বলে শর্ট ফাইন লেগে ধরা পড়েন আসিফ। পাক এ ব্যাটার ভালো করেই জানতেন, তিনি আউট হলে ম্যাচ জেতানোর মতো আর কোনো জাত ব্যাটার ক্রিজে থাকবেন না। তাই নিজের ওপরই হয়তো তার রাগ হচ্ছিল। ম্যাচের এমন উত্তেজনাকর মুহূর্তে আউট হয়ে মেজাজটা আর ধরে রাখতে পারলেন না আসিফ। এমন মুহূর্তে উইকেট পেয়ে আসিফের সামনে এসে কিছু একটা বলেন ফরিদ। সেটা শুনে আসিফ মেজাজ হারান, ব্যাট উঁচিয়ে আফগান পেসারকে মারতে যান। পরে আরেক আফগান ফিল্ডার এসে সরিয়ে নেন আসিফকে।

এদিকে ভারতের পর আফগানিস্তানকে হারিয়ে আসরের ফাইনাল নিশ্চিত করেছে পাকিস্তান। ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষও চূড়ান্ত। আগামী ১১ সেপ্টেম্বর শিরোপার জন্য তারা লড়াই করবেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। সুপার ফোরে টানা দুই ম্যাচ হারায় ইতোমধ্যে আসর থেকে ছিটকে গেছে ভারত ও আফগানিস্তান।