• সোমবার   ১৫ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ৩০ ১৪২৯

  • || ১৭ মুহররম ১৪৪৪

শরীয়তপুর বার্তা

দার্জিলিংয়ে তুষারপাত, আনন্দে মাতোয়ারা পর্যটকরা

শরীয়তপুর বার্তা

প্রকাশিত: ৩০ ডিসেম্বর ২০২১  

বৃষ্টির পূর্বভাস ছিল। সেই মতো সোমবার (২৭ ডিসেম্বর) থেকেই পাহাড়ে বৃষ্টি হচ্ছিল। তবে বছর শেষের দোরগোড়ায় বরফের চাদরে ঢাকল পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং। বুধবার (২৯ ডিসেম্বর) টাইগার হিল, ঘুম ও সোনাদা, জোড়বাংলো, সুখিয়া পোখারিতে তুষারপাত হয়েছে। বাড়িঘর, রাস্তাঘাট, টয়ট্রেনের লাইনে বরফের আস্তরণ। লাভা, রিষপেও তুষারপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী কয়েকদিন এমনই আবহাওয়া থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। ফলে আনন্দে মাতোয়ারা পর্যটকরা।

আগামী কয়েকদিন পশ্চিমবঙ্গের ওই অংশগুলিতে তাপমাত্রা প্রায় ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশে থাকবে। পাশাপাশি দার্জিলিংয়ে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৭ থেকে ৮ ডিগ্রি থাকবে। ফলে কনকনে হাড় কাঁপানো ঠাণ্ডা। এরই মধ্যে চলছে তুষারপাত। অপরদিকে সান্দাকফুতে তাপমাত্রার পারদ হিমাঙ্কের নিচে নেমে গিয়েছে।

কলকাতার আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জেরে পাহাড়ে বৃষ্টি এবং তুষারপাত হচ্ছে। যা এই সময় দার্জিলিংয়ের ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে। তুষারপাত হচ্ছে টাইগার হিলে। ফলে বছর শেষের মৌসুমে পাহাড়ের মনোরম দৃশ্যর সঙ্গে পর্যটকদের উপড়ি পাওনা বরফ। ফলে তাদের মধ্যে খুশির জোয়ার এসেছে। ঘুরতে যাওয়া অনেকেই জানিয়েছেন, বরফ ঢাকা দার্জিলিং এক আলাদা অনুভূতি এনে দিয়েছে তাদের এই সফরে।

দার্জিলিংয়ের মতোই বরফের আস্তরণে মুড়েছে সিকিমও। লাচুং এ উষ্ণতা হিমাঙ্কের নিচে। চলছে তুষারপাত। সর্বত্র বরফমোড়া দৃশ্য। নাথু লা, ইয়ামথাং বরফের চাদরে মোড়া। ফলে পর্যটকদের আনাগোনা বাড়বে বলেই আশাবাদী হোটেল ব্যবসায়ীরা। তবে ২৭ ডিসেম্বের সিকিমের ছাংগুতে তুয়ারপাতের জেরে সড়ক পথ বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে ছিল ওইদিন সেনাবাহিনী পর্যটকদের নিচে নামিয়ে আনেন। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতেই আনন্দে মাতোয়ারা পর্যটকরা।

অবশ্য দার্জিলিংয়ে বরফ পড়লেও উত্তরবঙ্গের বাকি জেলাগুলির আবহাওয়া অন্যরকম। জলপাইগুড়ি থেকে মালদহ মেঘলা আকাশ। মাঝে মধ্যেই হচ্ছে ঝিরঝিরি বৃষ্টি। তবে কলকাতায় বৃষ্টি না হলেও শীতল অনুভূতি বজায় রয়েছে।